November 16, 2015

কুইজঃ শেষ লাইন (উত্তর প্রকাশিত)



উৎস গুগল ইমেজেস


আজকের কুইজ বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত শেষ লাইনদের নিয়ে। যাদের দেখে আপনাকে রচনা এবং রচয়িতাকে চিনতে হবে।

কেউ যদি চুলচেরা বিচার করতে চান তাহলে নিচের দুয়েকটা লাইন আক্ষরিক অর্থে শেষ লাইন নয়। কারণ তার পরেও পরিশিষ্ট বলে একটা চ্যাপ্টার ছিল। তবে পরিশিষ্টর শেষ লাইনগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ইন্টারেস্টিং হয় না, তাই আমি তাদের ধরিনি। সে জায়গায় নিচের লাইনগুলো প্রত্যেকটাই ইন্টারেস্টিং এবং স্মরণীয়। আমার তো অনেক ক্ষেত্রে শুধু এই লাইনগুলোই মনে আছে, বাকি গল্পটা ভুলে মেরে দিয়েছি।

নিয়ম সেই আগের মতোই। তবে এতদিনের অনভ্যাসে যদি কেউ ভুলে গিয়ে থাকেন তবে আবার মনে করিয়ে দিই। খেলা চলবে চব্বিশ ঘণ্টা ধরে। অর্থাৎ উত্তর বেরোবে দেশে মঙ্গলবার িকেল পাঁচটায়। ততক্ষণ কমেন্ট পাহারা দেব আমি।

অল দ্য বেস্ট।

*****

বিসর্জ্জন আসিয়া প্রতিষ্ঠাকে লইয়া গেল।

তাঁর বুকে গুলি লেগেছিল, তাঁর হয়ে গেছে।  

তোমাদের কিনা এখনও বেশি বয়স হয়নি, তাই তোমাদের কাছে ভরসা করে এসব কথা বললাম।

দুঃখের বিষয়, সান্ধ্য আড্ডাটি ভাঙিয়া গিয়াছে।

দূর গাধা, যাঃ মানেই হ্যাঁঃ।

যেমন মনে করিয়াছিলাম তেমন করিয়া ইলেকট্রিক আলো জ্বালাইতে পারিলাম না , গড়ের বাদ্যও আসিল না , অন্তঃপুরে মেয়েরা অত্যন্ত অসন্তোষ প্রকাশ করিতে লাগিলেন , কিন্তু মঙ্গল-আলোকে আমার শুভ উৎসব উজ্জ্বল হইয়া উঠিল ।

একটি মাত্র চোখ, হেমলকে প্রতিবিম্বিত চক্ষুসদৃশ, তাঁহার দিকেই, মিলন অভিলাষিণী নববধূর দিকে চাহিয়াছিল, যে চক্ষু কাঠের, কারণ নৌকাগাত্রে অঙ্কিত, তাহা সিন্দূর অঙ্কিত এবং ক্রমাগত জলোচ্ছ্বাসে তাহা সিক্ত, অশ্রুপাতক্ষম, ফলে কোথাও এখনও মায়া রহিয়া গেল।

সবাই সকল কাজে ব্যস্ত ,—শুধু সেই পোড়া খড়ের আঁটি হইতে যে স্বল্প ধুঁয়াটুকু ঘুরিয়া ঘুরিয়া আকাশে উঠিতেছিল, তাহারই প্রতি পলকহীন চক্ষু পাতিয়া কাঙালী ঊর্ধ্বদৃষ্টে স্তব্ধ হইয়া চাহিয়া রহিল।

একা অতদূরে কুবের পাড়ি দিতে পারব না?

কিন্তু আমার মনে হল চতুর্দিকের বরফের চেয়ে শুভ্রতর আবদুর রহমানের পাগড়ি, আর শুভ্রতম আবদুর রহমানের হৃদয়।

এমনি ছিল আমার প্রথমবার মামাবাড়ি যাবার ব্যাপার।

তখন অনেকেই তাদের দিকে তাকাল এবং দেখল পাগলাটে একটা লোকের বুকে মুখ ঘষতে ঘষতে ফোঁপাচ্ছে - যে মেয়েটি এইমাত্র আশ্চর্য সাঁতার দিল, আর তার মাথায় টপটপ করে জল ঝরে পড়ছে।

চল এগিয়ে যাই।  

*****


উত্তর


আনন্দমঠ, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়


ঘরে বাইরে, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর


হ য ব র ল, সুকুমার রায়


চিকিৎসা সঙ্কট, রাজশেখর বসু


বিরিঞ্চিবাবা, রাজশেস্খর বসু


কাবুলিওয়ালা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর


অন্তর্জলী যাত্রা, কমলকুমার মজুমদার


অভাগীর স্বর্গ, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়


পদ্মা নদীর মাঝি, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়


দেশে বিদেশে, সৈয়দ মুজতবা আলী


পদিপিসির বর্মিবাক্স, লীলা মজুমদার


কোনি, মতি নন্দী


পথের পাঁচালী, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়

38 comments:

  1. 1 Rabindranath
    2 Rabindranath - Ghor e Baire
    3 Lila majumder
    4
    5 Porshuram- Kapurush Mohapurush
    6 Rabindranath-Kabuliwala
    7
    8 Saratchandra Chattopadhyay
    9
    10 Manik Bandhopadhyay- Padma nadir majhi
    11 Said Muztaba Ali - Deshe Bideshe
    12
    13

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনার অনেকগুলোই ঠিক হয়েছে। খেলার জন্য অনেক ধন্যবাদ। কাপুরুষ মহাপুরুষের মহাপুরুষ অংশটা পরশুরাম লিখেছিলেন বটে, তবে বিরিঞ্চিবাবা নামে।

      Delete
  2. দূর গাধা, যাঃ মানেই হ্যাঁঃ। Birinchi Baba
    যেমন মনে করিয়াছিলাম তেমন করিয়া ইলেকট্রিক আলো জ্বালাইতে পারিলাম না , গড়ের বাদ্যও আসিল না , অন্তঃপুরে মেয়েরা অত্যন্ত অসন্তোষ প্রকাশ করিতে লাগিলেন , কিন্তু মঙ্গল-আলোকে আমার শুভ উৎসব উজ্জ্বল হইয়া উঠিল । Kabuliwala ki? Not sure..
    সবাই সকল কাজে ব্যস্ত ,—শুধু সেই পোড়া খড়ের আঁটি হইতে যে স্বল্প ধুঁয়াটুকু ঘুরিয়া ঘুরিয়া আকাশে উঠিতেছিল, তাহারই প্রতি পলকহীন চক্ষু পাতিয়া কাঙালী ঊর্ধ্বদৃষ্টে স্তব্ধ হইয়া চাহিয়া রহিল। Obhagir Sworgo. kar bap er khomota ache erom akta bitkel depressing golpo bhule jabe.
    একা অতদূরে কুবের পাড়ি দিতে পারব না? Padma Nadir Majhi
    তখন অনেকেই তাদের দিকে তাকাল এবং দেখল পাগলাটে একটা লোকের বুকে মুখ ঘষতে ঘষতে ফোঁপাচ্ছে - যে মেয়েটি এইমাত্র আশ্চর্য সাঁতার দিল, আর তার মাথায় টপটপ করে জল ঝরে পড়ছে। Koni. Koni. Koni. Amar onnotomo priyo golpo.
    4th ta khub chena chena lagchilo, kintu kichutei trace korte parlam na.

    ReplyDelete
    Replies
    1. কোনি আমারও প্রিয় গল্প, কুহেলি। সময় নিয়ে খেলার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
    2. "Obhagir Sworgo" niye comment ta ekkere khasa!

      Delete
  3. ৫। বিরিঞ্চিবাবা
    ৬। কাবুলিওয়ালা
    ৮। অভাগীর স্বর্গ
    ১০ দেশে বিদেশে

    বাকিগুলো পুরো ব্ল্যাঙ্ক!

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা, যতগুলো অ্যাটেম্পট করেছেন সেগুলো তো সব ঠিক হয়েছে, আর কী চাই, অরিজিত। খেলার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  4. 1>...
    2>...
    3> ha ja ba ra la (sukumar roy)
    4> Chikitsha Shonkot (Parashuruam)
    5. Birinchibaba (Parashuram)
    6> Kabuliwala (Rabindranath)
    7>
    8> Abhagir Shorgo (Sharat Chandra)
    9> Padma Nadir Majhi (Manik Bandopadhyay)
    10. Deshe Bideshe (Syed Mustafa Ali)
    11.
    12. Koni (Moti Nandi)
    13....

    ReplyDelete
    Replies
    1. অ্যাটেম্পট করা সবগুলোই ঠিক। অভিনন্দন, অর্পণ।

      Delete
    2. Antarjali Jatra porini....baki gulo para uchit chhilo.. especially podipishi. Mohila aajkei na goda haathe amaar shopne chole ashe !

      Delete
  5. 1,3 porechhi kintu mone korte parchhi na.
    2,7, 13,11 ekdom mone porchey na.
    4. chikitsha bibhrat poroshuram
    5. birinchibaba poroshuram
    6. kabuliwala rabindranath tagore
    8. abhagir swargo saratchandra chattopadhyay
    9. padma nadir majhi manik bandopadhyay
    10. jatrapothe syed mujtaba ali
    12. koni mati nandi

    ReplyDelete
    Replies
    1. যাত্রাপথে টা একটু ভুল হয়ে গেল, চুপকথা, বাকি যেগুলো লিখেছ সব ঠিক। অভিনন্দন আর ধন্যবাদ, দুটোই জেনো।

      Delete
    2. This comment has been removed by the author.

      Delete
    3. Are class 10 e deshe bideshe er ekta part amader required text chhilo (ma khu chihal o panjam hastam). Setar nam chhilo jatrapothe. sei tai uttor lekhar somoy ghare chepe bosechhilo r ki.

      Delete
    4. তুমি কি বেঙ্গল বোর্ড, চুপকথা? আমাদেরও ওই পিসটা ছিল, আর যদ্দূর মনে পড়ছে যাত্রাপথে নামেই ছিল।

      Delete
    5. Haan Bengal Board. :) oi part ta porei thik korechhilam etar puro boita porte hobe. Byas sei je Mujtaba Ali te mojlam, ekhono berote parini.

      Delete
  6. তেরোটার মধ্যে ন'টার উত্তর দিলাম, কটা মিলবে কে জানে!

    ২ ঘরে বাইরে, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
    ৩ হ য ব র ল, সুকুমার রায়
    ৪ চিকিৎসা সঙ্কট, রাজশেখর বসু
    ৬ কাবুলিওয়ালা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
    ৭ অন্তর্জলি যাত্রা, কমলকুমার মজুমদার
    ৮ অভাগীর স্বর্গ, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
    ৯ পদ্মা নদীর মাঝি, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়
    ১০ দেশে বিদেশে, সৈয়দ মুজতবা আলি
    ১৩ পথের পাঁচালি, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়

    ReplyDelete
    Replies
    1. বেশ তো জানেন সবকটাই মিলবে, আবার বিনয় কীসের জন্য, দেবাশিস? দারুণ খেলেছেন, অভিনন্দন।

      Delete
  7. বিসর্জ্জন আসিয়া প্রতিষ্ঠাকে লইয়া গেল।

    তাঁর বুকে গুলি লেগেছিল, তাঁর হয়ে গেছে।

    তোমাদের কিনা এখনও বেশি বয়স হয়নি, তাই তোমাদের কাছে ভরসা করে এসব কথা বললাম।
    - উপেন্দ্রকিশোর? খুব চেনা লাইন, মনে পড়ছে না লেখার নামটা।

    দুঃখের বিষয়, সান্ধ্য আড্ডাটি ভাঙিয়া গিয়াছে।

    দূর গাধা, যাঃ মানেই হ্যাঁঃ।
    - বিরিঞ্চিবাবা। পরশুরাম। (আজকের দিনে এইসব লেখা লিখলে তাঁকে খুন হতে হত "ধর্মীয় ভাবাবেগে" আঘাত দেবার জন্য)

    যেমন মনে করিয়াছিলাম তেমন করিয়া ইলেকট্রিক আলো জ্বালাইতে পারিলাম না , গড়ের বাদ্যও আসিল না , অন্তঃপুরে মেয়েরা অত্যন্ত অসন্তোষ প্রকাশ করিতে লাগিলেন , কিন্তু মঙ্গল-আলোকে আমার শুভ উৎসব উজ্জ্বল হইয়া উঠিল ।
    - কাবুলিওয়ালা। রবীন্দ্রনাথ। লেখাটার কথা মনে করতেই এখনও কেমন চোখে জল চলে এল।

    একটি মাত্র চোখ, হেমলকে প্রতিবিম্বিত চক্ষুসদৃশ, তাঁহার দিকেই, মিলন অভিলাষিণী নববধূর দিকে চাহিয়াছিল, যে চক্ষু কাঠের, কারণ নৌকাগাত্রে অঙ্কিত, তাহা সিন্দূর অঙ্কিত এবং ক্রমাগত জলোচ্ছ্বাসে তাহা সিক্ত, অশ্রুপাতক্ষম, ফলে কোথাও এখনও মায়া রহিয়া গেল।

    সবাই সকল কাজে ব্যস্ত ,—শুধু সেই পোড়া খড়ের আঁটি হইতে যে স্বল্প ধুঁয়াটুকু ঘুরিয়া ঘুরিয়া আকাশে উঠিতেছিল, তাহারই প্রতি পলকহীন চক্ষু পাতিয়া কাঙালী ঊর্ধ্বদৃষ্টে স্তব্ধ হইয়া চাহিয়া রহিল।
    -অভাগীর স্বর্গ। শরৎচন্দ্র।

    একা অতদূরে কুবের পাড়ি দিতে পারব না?
    - পদ্মানদীর মাঝি। মানিক।

    কিন্তু আমার মনে হল চতুর্দিকের বরফের চেয়ে শুভ্রতর আবদুর রহমানের পাগড়ি, আর শুভ্রতম আবদুর রহমানের হৃদয়।
    - দেশে বিদেশে। সৈয়দ মুজতবা আলী।

    এমনি ছিল আমার প্রথমবার মামাবাড়ি যাবার ব্যাপার।

    তখন অনেকেই তাদের দিকে তাকাল এবং দেখল পাগলাটে একটা লোকের বুকে মুখ ঘষতে ঘষতে ফোঁপাচ্ছে - যে মেয়েটি এইমাত্র আশ্চর্য সাঁতার দিল, আর তার মাথায় টপটপ করে জল ঝরে পড়ছে।

    চল এগিয়ে যাই।


    ----------
    বাকিগুলো হয় পড়ি নি, নয় একেবারেই মনে পড়ছে না।

    ReplyDelete
    Replies
    1. পড়েছেন ঠিকই, সময়মতো মনে পড়েনি। তাতে অসুবিধে নেই কোনও। 'কাবুলিওয়ালা = কান্না' তে হাই ফাইভ। উপেন্দ্রকিশোরের আন্দাজটাও ফ্যামিলির মধ্যেই রেখেছেন, কাজেই ঠিকই হয়েছে ধরে নেওয়া চলে। পচা খেলা সময় নষ্ট করে খেলার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  8. দুঃখের বিষয়, সান্ধ্য আড্ডাটি ভাঙিয়া গিয়াছে। - ChikiTsa Bibhrat

    দূর গাধা, যাঃ মানেই হ্যাঁঃ। - Birinchi Baba

    সবাই সকল কাজে ব্যস্ত ,—শুধু সেই পোড়া খড়ের... - Abhagir Sworgo

    একা অতদূরে কুবের পাড়ি দিতে পারব না? - Podma Nodir Majhi


    Aro onekguloi mone aschhe, pete aachhe, mukhe aschhe na gochher byapar :-D




    ReplyDelete
    Replies
    1. আমাকে উত্তর দিতে হলে আমারও ওরকমই হত। ব্যাগ গোছানো হয়ে গেছে?

      Delete
  9. Very very bad performance :(

    3. Hesoram hnusiarer diary.
    4. Parasuram story ( Don't recall the name, Chikitsa Shonkot ?)
    5. Birinchibaba
    8. Abhagir Sworgo
    10. Deshe Bideshe

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে না না, রণদীপ, দুঃখের স্মাইলি দেওয়ার কোনও কারণই নেই। তুমি যতগুলো অ্যাটেম্পট করেছ তার প্রায় সবগুলোই ঠিক, খালি একটা লেখার নাম ভুল হয়েছে কিন্তু লেখকের নাম ঠিক। খেলার জন্য অনেক অনেক থ্যাংক ইউ।

      Delete
  10. 2. Ghore-baire, Rabindranath Thakur
    3. Hojoborolo, Sukumar Ray
    4. Chikitsa Bibhrat, Parashuram (Rajsekhar Bosu)
    5. Birinchi baba, Parashuram (Rajsekhar Bosu)
    6. Kabuliwala, Rabindranath Thakur
    8. Obhagir Sorgo, Saratchandra Chattopadhyay
    9. Padma Nodir Majhi, Manik Bandopadhyay
    11. Podipishir bormi bakso, Lila Majumdar
    12. Kony, Moti Nandi

    ReplyDelete
    Replies
    1. ফাটাফাটি, রুণা। একেবারে দাঁড়িয়ে উঠে হাততালি। থ্যাংক ইউ। বাই দ্য ওয়ে, পদিপিসির বর্মিবাক্স একমাত্র তুমি পেরেছ। অভিনন্দন।

      Delete
    2. Thank you, thank you Kuntala. Pather Panchali ta na parar joneey nijeke ekta cha(n)ti. Anando mother jonney nijeke kshama kore dilam -- onekdin agey pora.

      Delete
  11. আনন্দমঠ

    ঘরে বাইরে

    হ য ব র ল

    চিকিত্‍সা সঙ্কট

    বিরিঞ্চিবাবা

    কাবুলিওয়ালা

    অন্তর্জলী যাত্রা

    অভাগীর স্বর্গ

    পদ্মা নদীর মাঝি

    দেশে বিদেশে

    ________

    কোনি

    পথের পাঁচালী

    ReplyDelete
    Replies
    1. যথারীতি চমৎকার, পিয়াস। আনন্দমঠ টা তুমি একমাত্র পেরেছ, সেজন্য এক্সট্রা অভিনন্দন। আর যেটা পারোনি, সেটা সত্যি পারা শক্ত ছিল। খেলার জন্য প্রতিবারের মতোই অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
    2. দেখ কান্ড ! লাইনটা পড়েই পদিপিসির কথা মনে হয়েছিল। কিন্তু একটু খটকা থাকায় আর হাতের কাছে বইটা না থাকায় এমন একজনকে ফোন করে জিগ্যেস করলাম যে কিনা কিছুদিন আগেই ওটা পড়েছে। সেও কিনা বেমালুম বলে দিল ওই লাইনটা ওই বইয়ের নয় ! শেষমেষ আমি শিবরাম, শীর্ষেন্দু, সুনীল এইসব সাতপাঁচ ভাবতে ভাবতে ফাঁকা খাতা জমা দিয়ে দিলাম। আচ্ছা, ওই বইটাতেই কি পরিশিষ্ট রয়েছে?
      যাই হোক, অনেকদিন পর মনের মত একটা কুইজ পেয়ে বেজায় আনন্দ পেলাম। কুইজের ফ্রিকোয়েন্সি একটু বাড়ালে হয়না, কুন্তলাদি ? গান, সিনেমা নিয়ে কিন্তু অনেকদিন কুইজ দাওনা!

      Delete
    3. ঠিকই বলেছ, পিয়াস, কুইজ বড় কম হয় আজকাল। কিন্তু এ অন্যায় বদলানোর সময় এসেছে। তুমি বলার পর একটা গান নিয়ে, আরেকটা সিনেমা নিয়ে কুইজের আইডিয়া মাথায় ঘুরছে, দেখি চটপট দিয়ে ফেলব। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  12. “বিসর্জ্জন আসিয়া প্রতিষ্ঠাকে লইয়া গেল।” - ?

    “তাঁর বুকে গুলি লেগেছিল, তাঁর হয়ে গেছে।” - ঘরে বাইরে, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

    “তোমাদের কিনা এখনও বেশি বয়স হয়নি, তাই তোমাদের কাছে ভরসা করে এসব কথা বললাম।” - হ য ব র ল, সুকুমার রায়

    “দুঃখের বিষয়, সান্ধ্য আড্ডাটি ভাঙিয়া গিয়াছে।” - চিকিৎসা সঙ্কট, পরশুরাম / রাজশেখর বসু

    “দূর গাধা, যাঃ মানেই হ্যাঁঃ।” - বিরিঞ্চিবাবা, পরশুরাম / রাজশেখর বসু

    “যেমন মনে করিয়াছিলাম তেমন করিয়া ইলেকট্রিক আলো জ্বালাইতে পারিলাম না , গড়ের বাদ্যও আসিল না , অন্তঃপুরে মেয়েরা অত্যন্ত অসন্তোষ প্রকাশ করিতে লাগিলেন , কিন্তু মঙ্গল-আলোকে আমার শুভ উৎসব উজ্জ্বল হইয়া উঠিল ।” - কাবুলিওয়ালা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

    “একটি মাত্র চোখ, হেমলকে প্রতিবিম্বিত চক্ষুসদৃশ, তাঁহার দিকেই, মিলন অভিলাষিণী নববধূর দিকে চাহিয়াছিল, যে চক্ষু কাঠের, কারণ নৌকাগাত্রে অঙ্কিত, তাহা সিন্দূর অঙ্কিত এবং ক্রমাগত জলোচ্ছ্বাসে তাহা সিক্ত, অশ্রুপাতক্ষম, ফলে কোথাও এখনও মায়া রহিয়া গেল।” - অন্তর্জলী যাত্রা, কমলকুমার মজুমদার

    “সবাই সকল কাজে ব্যস্ত ,—শুধু সেই পোড়া খড়ের আঁটি হইতে যে স্বল্প ধুঁয়াটুকু ঘুরিয়া ঘুরিয়া আকাশে উঠিতেছিল, তাহারই প্রতি পলকহীন চক্ষু পাতিয়া কাঙালী ঊর্ধ্বদৃষ্টে স্তব্ধ হইয়া চাহিয়া রহিল।” - অভাগীর স্বর্গ, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

    “একা অতদূরে কুবের পাড়ি দিতে পারব না” - পদ্মানদীর মাঝি, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়

    “কিন্তু আমার মনে হল চতুর্দিকের বরফের চেয়ে শুভ্রতর আবদুর রহমানের পাগড়ি, আর শুভ্রতম আবদুর রহমানের হৃদয়।” - দেশে বিদেশে, সৈয়দ মুজতবা আলি

    "এমনি ছিল আমার প্রথমবার মামাবাড়ি যাবার ব্যাপার।" - ?

    “তখন অনেকেই তাদের দিকে তাকাল এবং দেখল পাগলাটে একটা লোকের বুকে মুখ ঘষতে ঘষতে ফোঁপাচ্ছে - যে মেয়েটি এইমাত্র আশ্চর্য সাঁতার দিল, আর তার মাথায় টপটপ করে জল ঝরে পড়ছে।” - কোনি, মতি নন্দী

    চল এগিয়ে যাই।

    ReplyDelete
    Replies
    1. খুব ভালো খেলা হয়েছে, কৌশিক। সময় বার করে উত্তর দেওয়ার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  13. 1.
    2. ঘরে বাইরে
    ৩। লীলা মজুমদারের লেখা কিছু?
    ৪। বরদার গল্প
    ৫। বিরিঞ্চি বাবা
    ৬। কাবুলিওয়ালা
    ৭।
    ৮। অভাগীর স্বর্গ
    ৯। পদ্মানদীর মাঝি ??
    ১০। সৈয়দ মুজতবা আলী র লেখা
    ১১।
    ১২। কোনি
    ১৩।

    ReplyDelete
  14. ৭। অন্তর্জলী যাত্রা -- কমল্কুমার মজুমদার

    ReplyDelete
    Replies
    1. দারুণ খেলেছেন, অস্মিতা। অনেক অভিনন্দন আর ধন্যবাদ, দুটোই একসঙ্গে রইল।

      Delete
  15. দারুণ আর খেললাম কই।। জনতা তো দুর্ধর্ষ খেলেছে :(
    কালকেই প্রথম দেখলাম আপনার ব্লগ। ভালোই হলও, কালকেই কুইজ-এ অংশ নিয়ে একটু কথাবার্তা হয়ে গেল। সব লেখা তো পরে উঠতে পারিনি, যেগুলো পড়লাম, বেশ ভালো লেগেছে। লিখতে থাকুন, আবার আপনার ব্লগ পড়তে আসব। এই সুযোগে আপত্তি না করলে আমাদের ব্লগ টার কথাও একটু বলে জাই, সময় করে ঘুরে আসবেন একদিন।
    www.chorjapod.com

    ReplyDelete
    Replies
    1. নিশ্চয় যাব আপনাদের ব্লগে, অস্মিতা। লিংক দেওয়ার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.