March 20, 2020

জনসাধারণের সুবিধার্থে ঘোষণা



অধুনা আপৎকালীন পরিস্থিতিতে নিজেকে এবং প্রতিবেশীদের চাঙ্গা রাখার জন্য বারান্দায় কিংবা ছাদে উঠে থালবাদ্য সহযোগে গানবাজনার আইডিয়া চমৎকার। তবে প্রভাতফেরি বা সংকীর্তন বর্জন করে যে যার নিজস্ব ছাদ কিংবা বারান্দায় গাইলেই ভালো। গানের বাছবিচারেও সতর্কতা অবলম্বনের প্রয়োজন আছে। জনসাধারণের সুবিধার্থে পরিস্থিতির অনুকূল ও প্রতিকূল গানের তালিকা নিচে দেওয়া হল। ট্রাফিক লাইটের সংস্কৃতিচর্চার ক্ষেত্রেও এ তালিকা মেনে চলা স্বাস্থ্যকর।

বিঃ দ্রঃ - জীবনে সংস্কৃতিমংস্ক্রিতি সুরুচিফুরুচির ধার না-ধারা, গান না-গাওয়া, না-বোঝা, না-শেখা, মায় শোনারও কোনওরকম তাগিদ বোধ না-করা বাঙালিরাও যে সব গানগুচ্ছের নাগাল থেকে নিস্তার পায়নি বলে কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত, সে সব গানই তালিকায় রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। 


              যে সব গান গাওয়া যেতে পারে             
যা যা না গাইলেই ভালো
আঁধার আমার ভালো লাগে
আয় তবে সহচরী, হাতে হাতে ধরি ধরি
না বাঁচাবে যদি আমায় মারবে কেন তবে
আজ সবার রঙে রং মেলাতে হবে
আঃ বেঁচেছি এখন শর্মা দিকে আর নন
খোলো খোলো দ্বার
আমায় থাকতে দে না আপন মনে
ভেঙে মোর ঘরের চাবি নিয়ে যাবি কে আমারে
ও কেন ভালোবাসা জানাতে আসে
হায় অতিথি এখনি কি যাবার বেলা
ওকে ছুঁয়ো না, ছুঁয়ো না, ছি
আজ তোমারে দেখতে এলেম 
অনেক দিনের পরে
না না না, ডাকব না ডাকব না
অমন করে বাইরে থেকে
জগতে আনন্দযজ্ঞে আমার নিমন্ত্রণ
তোমায় দেখে মনে লাগে ব্যথা
তুই কেবল থাকিস সরে সরে 
তাই পাস না কিছুই হৃদয় ভরে
দ্বারে কেন দিলে নাড়া
তুমি একটু কেবল বসতে দিয়ো কাছে
প্রাণ নিয়ে তো সটকেছি রে, করবি এখন কী
যে তোমায় ছাড়ে ছাড়ুক
আমি তোমায় ছাড়ব না



10 comments:

  1. Goto ek sopotaho bari bondi. Tar modhyeo tomar post ta pore khub haslam.

    ReplyDelete
    Replies
    1. আমিও বাড়ি বসেই এ সব করছি আরকি, চুপকথা।

      Delete
  2. কুন্তলা দি , তোমায় কি বলে যে ধন্যবাদ জানাবো লেখাটার জন্য. এই আতঙ্কের দিনে তোমার লেখাটা একটু স্বাভাবিক করলো সবকিছু।

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, সূচনা। সাবধানে থেকো। বাড়িতে থেকো।

      Delete
  3. এটাও গাওয়া যেতে পারে:

    আজ জ্যোৎস্নারাতে সবাই গেছে বনে
    বসন্তের এই মাতাল সমীরণে ॥
    যাব না গো যাব না যে, রইনু পড়ে ঘরের মাঝে--
    এই নিরালায় রব আপন কোণে।
    যাব না এই মাতাল সমীরণে ॥
    আমার এ ঘর বহু যতন ক'রে
    ধুতে হবে মুছতে হবে মোরে।
    আমারে যে জাগতে হবে, কী জানি সে আসবে কবে
    যদি আমায় পড়ে তাহার মনে
    বসন্তের এই মাতাল সমীরণে ॥

    সাবধানে থাকুন। আমরা আপাতত সরকারি আদেশে গৃহবন্দী। ঘর থেকেই ছাত্র পড়াচ্ছি।

    ReplyDelete
    Replies
    1. আমরাও ওয়ার্ক ফ্রম হোম, সুগত।

      Delete
  4. hahaha. bedom hashlam.Ganer kathay mone pore gelo, Kotodin tor gaan shunini.

    ReplyDelete
    Replies
    1. কেমন আছিস, পাপড়ি? বাড়ির সবাই ভালো তো এই দুর্দিনে? সাবধানে থাকিস।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.