April 15, 2018

শুভ নববর্ষ



নববর্ষের পোস্ট লিখতে বসে টের পেলাম বর্ষটাই জানি না। গুগল করলাম, কিন্তু সেই যে বাধা পড়ল আর ঠিক হল না। একের পর এক খারাপ খবর আসতে লাগল। 

ভেবে দেখলাম, যা যা নিয়ে নববর্ষের পোস্ট লেখা যেতে পারত সেগুলোর কোনওটাই আর নেই। হালখাতা নেই। ন্যাতানো নিমকি নেই। দু’টাকা পিস দানাদার নেই। ক্যালেন্ডারে মা কালীর পায়ের কাছে জবাফুলের পাপড়িতে রামকৃষ্ণ বিবেকানন্দ মা সারদার মুখ নেই।

নতুন জামা নেই। যে রকম জামা পরার আগে স্রেফ চোখে দেখেই গরম লাগা কমে যায়, সে রকম জামা নেই। কারণ মা হাতের কাছে নেই। থাকলেও সুবিধে করতে পারতেন না কারণ এ বাড়িতে ঊষা কোম্পানির সেলাই মেশিন নেই। সর্বাঙ্গে নাইসিল ছড়িয়ে সেই জামা পরে যে পাড়া বেড়াতে বেরোব সে নাইসিল নেই।

একটা ভদ্রস্থ কালবৈশাখী নেই। নারকেল গাছ নেই যে সে গাছের মাথায় ঝড় দেখব।

একটা ছাদ নেই যে বৃষ্টি থামার পর ছাদে উঠে ভেজা ছাদে খালি পায়ে হাঁটতে হাঁটতে ঠাণ্ডা হাওয়া খাব।

পাড়ায় পাড়ায় বর্ষবরণ নেই। ন্যাড়া মাথায় ফুলের মালা জড়িয়ে ‘দারুণ অগ্নিবাণে রে’ নেই। ঝঞ্ঝাবিধ্বস্ত মাঠের কাদায় পা ডুবিয়ে ছাতামাথায় উৎসাহ দিতে আসা বাবা মা ঠাকুমা দাদু মামা মাসি কাকা পিসি নেই। 

তুলসীতলার নরম মাটিতে বাঁশের কঞ্চির মিনি ভারা নেই। ভারা থেকে ঝুলন্ত মাটির কলসির ফুটো দিয়ে সারা বৈশাখ তুলসীগাছের ওপর পড়তে থাকা জলের ফোঁটা নেই। কারণ অত কাণ্ড করার জন্য ঠাকুমা নেই।

পরিশীলিত উচ্চারণ এবং ততোধিক পরিশীলিত দাড়ি নিয়ে পঙ্কজ সাহার নববর্ষের সকালে একচ্ছত্র আধিপত্য নেই।

এন সি আরের লক্ষকোটি সিনেমা হলে এই মুহূর্তে একটাও বাংলা সিনেমা নেই। 

রেগে গিয়ে টিভি চালালাম। সংগীত বাংলায় একটা নতুন সিনেমার বিজ্ঞাপনে হিরো আর পরিচালকের কথোপকথন করছেন। মেজাজ একটু ভালো হতে শুরু করল। সাময়িক। অচিরেই উপলব্ধি করলাম আধঘণ্টার অনুষ্ঠান, অ্যাড বাদ দিয়ে কুড়ি মিনিট, পরিষ্কার বাংলায় কথা বলতে পারে এমন একটাও সেলিব্রিটি নেই। 

কী নিয়ে পোস্ট লিখব?

নিকুচি করেছে পোস্টের। রিমোট ছুঁড়ে ফেলে ভাবছি এই বেলা ক্যান্ডি ক্রাশের লেভেলটা একটু বাড়িয়ে নিই, ভেবে ল্যাপটপ বুকের ওপর তুলতে যাচ্ছি, মনে পড়ল অনেক কিছু আছেও। 

অ থেকে চন্দ্রবিন্দু পর্যন্ত এখনও কণ্ঠস্থ আছে।

বাংলায় ব্যবহার হওয়া কুড়িটা সংস্কৃত উপসর্গ এখনও একদমে বলে যাওয়ার মতো ঠোঁটস্থ আছে। প্র পরা অপ সম নি অব অনু নির্‌ দুর্‌ বি অধি সু উৎ পরি প্রতি অভি অতি অপি উপ আ। (গুগল করিনি, অন গড ফাদার মাদার।)

বাংলা উপন্যাস পড়া, সিনেমা দেখার সদিচ্ছে এবং দেখাশোনার পর গুছিয়ে নিন্দে করার বদিচ্ছে ভরপুর আছে।

আর কিছুক্ষণ পর থেকে বাংলা চ্যানেলে চ্যানেলে যে নববর্ষ উদযাপন ধামাকা হবে, সেগুলো বসে বসে গেলার এবং শিউরে শিউরে ওঠার হাতে সময় আছে।

রসরাজে নববর্ষ স্পেশাল মাখাসন্দেশ আছে। নববর্ষ + রবিবারের সকালে কচুরি আলুরতরকারি আছে। সে কচুরির জন্য দোকান ওপচানো লাইন আছে।

আর সবথেকে বেশি করে যা আছে তা হচ্ছে প্রীতি আর শুভেচ্ছা আর ভালোবাসা। নববর্ষের পুণ্য অবসরে এবং তারপর গোটা বছর জুড়ে আপনাদের সঙ্গে ভাগ করে নেওয়ার জন্য।

নতুন বছর আপনারা সবাই ভালো থাকুন, বাংলাকে মাথায় তুলুন বা পায়ে দলুন, ধুতিশাড়িকে অঙ্গে জড়ান বা কুলোর বাতাস দিন, বাংলা বলতে-লিখতে-পড়তে পারা বা না-পারা নিয়ে গর্ব করুন, বাংলাতে গড়াগড়ি খান বা গুষ্টির তুষ্টি করুন। মনে রাখুন আপনি বাঙালি। বাংলা আপনার পোষা ছাগলছানা, তাকে আড়ে কাটবেন না বহরে সে বিষয়ে আপনার কথাই শেষ কথা।

শুভ নববর্ষ।



28 comments:

  1. যত দিন যাচ্ছে, ব্যক্তিগত স্মৃতিগুলো ততই মুছে ফেলছি। মনে করতে চাইলে আপনি যা-যা লিখলেন, তার অধিকাংশই ফিরিয়ে আনা যেত। কিন্তু জীর্ণ বসনের মতো সেসব ফেলে দিয়ে আমি এখন নিজের মতো করে বাঙালিয়ানা উদযাপন করি প্রায় প্রতিটি দিন। মেয়েকে বাংলা পড়ানোর চেষ্টা করি, শ্রীমতী ও বোনেদের সঙ্গে বাংলা সিনেমা নিয়ে তুমুল তর্ক করি, বিগ বাজার থেকে শর্মা সুইটস সর্বত্র রাশভারী ভঙ্গিতে বাংলায় কথা বলি... মানে আমার বাংলা নববর্ষ রোজ পালিত হয় নিজের মতো করে।
    তবে হ্যাঁ, আজকের দিনটা আমি মনে রাখব। আজ আমার বই বেরোচ্ছে!
    ইতিমধ্যে, আপনাকে এবং অবান্তর-এর প্রতিটি পাঠককে জানাই "শুভ নববর্ষ"। ১৪২৫-এর প্রতিটি দান গন্ধরাজ লেবু দিয়ে মাখা সোনামুগের ডাল আর সরু চালের ভাতের মতো ভালো হোক।

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে এটা তো দারুণ খবর, ঋজু! আপনাকে ও আপনার প্রিয়জনদের নববর্ষের শুভেচ্ছার সঙ্গে সঙ্গে অনেক অভিনন্দন রইল নতুন বইয়ের জন্য। বইটার সম্বন্ধে আরেকটু যদি কিছু জানান, প্লিজ।

      Delete
    2. হাতের তেলোর থেকে একটু বড়ো, তাসের প্যাকেটের চেয়ে একটু ছোটো আকারের একটা বই। দেশলাইয়ের বাক্সের চেয়ে একটু বেশি পুরু। বাংলায় প্রথম পকেট থ্রিলার। একটাই উপন্যাস, যাতে মিশে আছে রাজনীতি, মিথ, আর ধুঁয়াধার অ্যাকশন। নাম "পয়েন্ট ব্রাভো"। প্রকাশক অরণ্যমন।

      Delete
    3. থ্যাংক ইউ, ঋজু। পয়েন্ট ব্রাভো পড়ে পাঠকের ঘাড়ের রোঁয়া খাড়া হয়ে উঠুক, কাজে ফাঁকি পড়ুক, বসের বকুনির ভয় সত্ত্বেও বই হাত থেকে নামানোর কুচিন্তা কারও মনে না উঁকি দিক, কায়মনোবাক্যে এই প্রার্থনা করলাম।

      Delete
  2. Shubho Noboborsho tomader ke ar Abantor ke Kuntala!
    Ami Bangali hoye o Bangla likhte jani na eyi dukkho ta thekegelo ... tobe bangla boi pori gograshe.
    Ar hain ... oi shob na thakar bheteore shob chaite dukkhokor hocche oi kalboishakhi ta na thaka.
    Khub bhalo katuk tomar notun bochor eyi kamona kori.

    ReplyDelete
    Replies
    1. তোমারও নতুন বছর ভালো কাটুক, শর্মিলা।

      Delete
  3. Subho nababarso kuntala di.apnar ebong apnar paribarer sabaikar agami bachar khub valo katuk.-Sunanda.

    ReplyDelete
    Replies
    1. শুভ নববর্ষ, সুনন্দা।

      Delete
  4. উফ প্রত‍্যেকটা কথা মিলছে ... তবে আমার শ্বশুরবাড়িতে বেলুড় মঠ সম্বন্ধীয় ছবি ও ক‍্যালেন্ডার এর আধিক‍্য খুব :) আজ সকালেই পঙ্কজ সাহার কথা মনে হল.. খুব পছন্দ হল লেখাটা.. কিছু যদি মনে না কর তবে মনে হয় প্র পরা অপ সম ... উপ টাইপ হয়ে গেছে দুবার .. নববর্ষে অনেক শুভেচ্ছা.. সবাই নিজের মত করে বাংলা ভালবাসুক ..

    ReplyDelete
    Replies
    1. নববর্ষের শুভেচ্ছা তোকেও, ঊর্মি।

      Delete
  5. নববর্ষের শুভেচ্ছা আপনাকেও। আপনার সোনার কীবোর্ড হোক আর অনেক লিখুন।

    ReplyDelete
    Replies
    1. নববর্ষের অনেক শুভেচ্ছা আপনাকেও,নালক। আপনাদের শুভেচ্ছা মনখারাপের মুহূর্তগুলোতে সাহস দেয়।

      Delete
  6. Subho Nabo Borsho Kuntala. :)
    khub khub bhalo katuK ei bochhorta, r onek onek bhalo bhalo, mon-kemon-kora lekha likhun. :)

    ei prosonge tagadarthe janai, goto masher boi-sonkranto lekhata baki acche. :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. শুভ নববর্ষের প্রীতি শুভেচ্ছা ভালোবাসা আপনাকেও, অরিজিত। আপনিও যা চান তাই পান।

      বইয়ের কথা আর বলবেন না। একটা মিনি-খরার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। আশা করি কেটে যাবে। এ মাসের শেষে পোস্ট আসবেই। খরা কাটুক না কাটুক।

      Delete
  7. haha , sesher bakyota apurbo :) tor ei bachar khub bhalo katuk :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. সেম টু ইউ,তিন্নি।

      Delete
  8. Replies
    1. শুভ নববর্ষ, চুপকথা।

      Delete
  9. শুভ নববর্ষ কুন্তলা! তোমার কলম অক্ষয় হোক - আরো অনেক লেখো! কঠিন সময়েও তোমার লেখা মন ভালো করে দেয় তাই অনেক ধন্যবাদ তোমাকে!

    ReplyDelete
    Replies
    1. নববর্ষের অনেক শুভেচ্ছা তোমাকেও, কাকলি। ধন্যবাদ আমারই দেওয়ার কথা।

      Delete
  10. নববর্ষের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা নিও। তোমার লেখা আরো আনন্দে আমাদের ভরিয়ে তুলুক। এই প্রার্থনা।
    অনেক জিনিস মনে করিয়ে দিলে। ঐ তুলসী তলার ভারার ব্যাপারটা তো চোখেই দেখিনি আজ বিশ বছর। অথচ যেই পড়লাম, পরিষ্কার দেখলাম, ঠাকুমা ঠাকুর ঘর থেকে বেরিয়ে গলবস্ত্র হয়ে ভারায় জল ঢেলে দিচ্ছেন।

    স্মৃতিগুলো কে বাঁচিয়ে রাখার জন্যে ধন্যবাদ।

    ReplyDelete
    Replies
    1. নববর্ষের শুভকামনা রইলো আমার তরফ থেকেও, চন্দ্রচূড়।

      Delete
  11. শুভ নববর্ষ কুন্তলাদি ।একটু দেরী হয়ে গেলো জানাতে , কিন্তু মিষ্টি এখনো মজুত মানে নববর্ষও তাই না :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. সে তো বটেই। তোমাকেও নববর্ষের অনেক শুভেচ্ছা ভালোবাসা, প্রদীপ্ত।

      Delete
  12. Shubho Nababorsho, Kuntala. Deri korar jonnyo khoma chailam, Bhalo katuk 1425. Aro onek lekhar opekhhai roilam.

    ReplyDelete
    Replies
    1. দেরি কোথায়, সাতদিনও পুরোনো হয়নি তো নতুন বছর। শুভ নববর্ষ আপনাকেও।

      Delete
  13. Shubho Noboborsho !!!
    khub bhalo katuk notun bachhor, onek deri kore eleo oneek subhechha rekhe gelam tomar jonye. - Ichhadana

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনার আর আপনার প্রিয়জনদের জন্যও অনেক শুভেচ্ছা আর ভালোবাসা রইল, ইচ্ছাডানা।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.