March 02, 2019

ইরা





গত সপ্তাহে আমাদের বাড়িতে ইরা এসেছিল।

ইরা কলা, ডিম, নিমকি, কেক খেতে ভালোবাসে, মিয়াম আর ভৌ ভৌদের ভালোবাসে, পার্কে যেতে ভালোবাসে, রেস্টোর‍্যান্টের টেবিল টিস্যু পেপার দিয়ে ঘষে ঘষে মুছতে ভালোবাসে আর ভালোবাসে বড়দের চটি পরতে। 

বাড়িওয়ালার বাগানে মিয়াম, লোদি গার্ডেনে ভৌ ভৌ আর পার্কে ইরা, তিনজনের ছবিই তুলেছে সায়ক।


ইরার কল্যাণে আমাদের দিল্লি শহরটা ঘুরে দেখা হল। লোদি গার্ডেন আর হুমায়ুন'স টুম্ব। গোটা দিল্লিতে তিন্নির ফেভারিট জায়গা।


লোদি গার্ডেনে বসে আমি আর তিন্নি আলোচনা করছি। বিষয় মনে নেই তবে মুখভঙ্গি দেখে ভারতবর্ষের ভবিষ্যৎ নয় বলেই বোধ হচ্ছে। পিকচার কার্টেসি আবার সায়ক।

এটাও সায়কের ক্যামেরায়

ইরার দু'বছরের জন্মদিন পালন হল। যে লোকটাকে আমি জীবনের দ্বিতীয় কলা খাওয়ার মতো নতুন দেখেছিলাম, সে "চামুচ" দিয়ে নিজেই কেক খাচ্ছে দেখে বিশ্বাস হচ্ছিল না।

সায়কের মোবাইলে।

মামাবাড়ি বেড়াতে এসে ইরার কেমন লেগেছে জানি না, ইরার মামীর ভীষণ আনন্দ হয়েছে।



6 comments:

  1. God bless you Ira, happy birthday (belated)!
    iti
    Shuteertho mama

    ReplyDelete
    Replies
    1. ইরা তো এখনও অত শক্ত কথা বলতে পারে না, তাই ওর হয়ে আমিই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানালাম, সুতীর্থ।

      Delete
  2. Haha.. eto bhalo laglo.. sob bacchai bodhoy boroder juto ar table chair mochamuchi bhalobase.. amar bariteo eki jinis... �� kola khete bhalobase mane Ira khub e bhalo meye...

    ReplyDelete
    Replies
    1. এটা ঠিক বলেছিস, ঊর্মি। এবং এটা জেনারেশন ব্যতিরেকে ঘটে। আমারও ছবি আছে, ন্যাতা বালতি নিয়ে ঘর মোছার। ঠিক ইরারই বয়স কি আরও ছোট ছিলাম।

      Delete
  3. Mishti Ira'r jonyo roilo onek onek bhalobasha :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. ইরা আর ইরার মামীর পক্ষ থেকে অনেক ধন্যবাদ, অরিজিত।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.