May 14, 2014

টপ থ্রি সিক্রেটস টু আ হ্যাপি ম্যারেজঃ ফ্রম দ্য রিয়েল এক্সপার্ট



একসঙ্গে সময় কাটান। ডু থিংস টুগেদার।

অবশ্য এতদিন যদি সব ঠিক ঠিক চলে থাকে তাহলে একসঙ্গে সময় কাটানো ছাড়া আর গতিও নেই। বিবাহিত বন্ধুরা সবাই ডুয়িং থিংস টুগেদার, অবিবাহিতরা উত্তর আকাশের নক্ষত্রের মতোই সুদূর ও গ্ল্যামারাস হয়ে উঠেছে। সে নক্ষত্রলোকের বুক লঞ্চ আর হেরিটেজ ওয়াকের মায়া কাটিয়ে তারা সহজে আপনাদের ডিমআলুভাতে জীবনে টুকি দিতে আসছে না, সে আপনি যতই মাথা খুঁড়ুন না কেন।

আর মাথা খুঁড়বেনই বা কেন? সময়ের কোয়ালিটি নিয়ে মাথা ঘামাবেন না। কোয়ানটিটির দিকে মনোযোগ দিন, কোয়ালিটি আপসে আসবে, না এলেও ঘাবড়ানোর কিচ্ছু নেই। যারা বুক লঞ্চে যেতে চায় যেতে দিন, আপনারা বাড়ি এসে হাত পা ধুয়ে বাটি করে চাট্টি মুড়ি নিয়ে টিভি খুলে বসুন। কে ডি পাঠকের আদালত লোকে লোকারণ্য।

- ইস্‌, শুরু হয়ে গেছে। সব তোমার জন্য। মুড়ি ইজ মুড়ি। সেটা দশটাকার প্যাকেট নেবে না পনেরো টাকার সে নিয়ে একঘণ্টা ধরে ভাবার কী আছে কে জানে বাবা। শুরুটা মিস হয়ে গেল তো? যত্তসব।

- বা বা বা বা, আর আলুর চপের জন্যে হন্যে হয়ে যে ঝাড়া দশ মিনিট দাঁড়িয়ে রইলে, পাশে পেঁয়াজিগুলো পড়ে পড়ে ধুলো খাচ্ছে দেখেও সে বেলা? কী হত একদিন চপের বদলে পেঁয়াজি খেলে? পাঁচটার জায়গায় তিনটে চোঁয়াঢেঁকুর উঠত, এই তো?

এর থেকে তীক্ষ্ণ যুক্তিসম্পন্ন ডিসকোর্সওয়ালা কোনও বুক লঞ্চ যদি আপনারা আমাকে দেখাতে পারেন তবে আমি . . . কিছুই করব না, কারণ আপনারা আমাকে দেখাতে পারবেন না।

ডু থিংস টুগেদার, বাট নট নেসেসারিলি দ্য সেম থিংস। আমি তো বলি সেম থিংস করা এড়িয়ে চলুন। যে কোনও সফল সম্পর্কের সিক্রেটই হচ্ছে বৈচিত্র্য। বৈচিত্র্য রক্ষা করুন, দাম্পত্য সতেজ রাখুন। একজনের ছবি তোলার ঝোঁক থাকলে অন্যজন ছবি তোলানোয় মনোযোগ দিন। একজন হারিয়ে ফেলার ঈশ্বরপ্রদত্ত ক্ষমতা নিয়ে জন্মালে অন্যজন খুঁজে বার করার প্রতিভায় শান দিন। পরস্পরের পরিপূরক হোন। নিজেদের আগ্রহের পরিধি বিস্তৃত করুন। একজন চা বসালে আরেকজন বিছানা তুলুন, একজন টিভি দেখলে অন্যজন ক্যান্ডিক্রাশ খেলুন। না হলেই চ্যানেল পাল্টানো কিংবা খেলনার মালিকানা নিয়ে ঝামেলা অবশ্যম্ভাবী। বেস্ট হয় এ সব কাজ করার সময় মুখ বন্ধ রাখতে পারলে। বাগযন্ত্র তো অনেক বলেছে, এবার আত্মাদের আলাপচারিতায় মগ্ন হতে দিন।


ভুল মানুষ মাত্রেই করে। লজ্জা না পেয়ে শুধরে নিন দিন।

- হ্যালো ভাইসাব, অমুক ব্লককা তমুক নম্বরকা ফার্স্ট ফ্লোরকা রাইট হ্যান্ড সাইড মে এক পানি ভেজ দিজিয়ে প্লিজ।
- . . .

- হাঁ হাঁ, রাইট হ্যান্ড রাইট হ্যান্ড। না না, থার্ড নেহি, ফার্স্ট ফ্লোর, ফার্স্ট, পহেলি মঞ্জিল। থোড়া জলদি ভেজিয়ে প্লিজ। ঘর মে পানি বিলকুল খতম।
- . . .

- ও-ও-কে ভাইসাব, বহোত বহোত শুক্রিয়া।

ফোন কান থেকে নামিয়ে বিজয়ীর ভঙ্গিতে টু ডু লিস্টের আরেকটি আইটেমের পেট ফাঁসানো হল। এমন সময় খাটের ওপর থেকে ভেসে এল উদাসীন গলা,

- ভদ্রলোক বাঙালি।
- কী?
- বলছি যে জলওয়ালা ভদ্রলোক বাঙালি।
- হ্যাঃ।

নীরবতা। তর্কের মোক্ষম জায়গায় নীরবতা গুঁজে দিতে পারলে বিপক্ষের আত্মবিশ্বাস যে কত দ্রুত এবং কতখানি নামিয়ে আনা যায় সেটা অভিজ্ঞতা না থাকলে বোঝা অসম্ভব।

- ইমপসিবল। আমি গত এক বছর ধরে হিন্দিতে জল অর্ডার দিচ্ছি।
- আমি গত দেড়বছর ধরে দিচ্ছি। বিশুদ্ধ বাংলায়।

চল্লিশ মিনিট আগে হাতের ধাক্কা লেগে খাট থেকে পড়ে গিয়েছিল ফোন। ‘যাকগে যাক, এখন তো লাগছে না, লাগলে তুলব এখন’ করে ফেলে রাখা হয়েছিল। এখন ডিঙি মেরে তুলতে হল।

- এই নম্বর তো?

ছুঁচে সুতো পরানোর মনোযোগ সহকারে দুই ফোনের নম্বর পরীক্ষা চলল ঝাড়া আধ মিনিট ধরে।

- আশ্চর্য! তা ভদ্রলোকই বা হিন্দিতে উত্তর দেন কেন? বললেই হয় বাঙালি, বাংলায় বলুন। এ কী ধরণের রসিকতা?

সিরিয়াসলি। নন্দ ঘোষ যদি কেউ থাকে তবে ওই ভদ্রলোক।

- আহা, ভদ্রলোকের হয়তো ভালোই লাগে শুনতে। এ পাড়ায় শুক্রিয়াটুক্রিয়া জাতীয় বিশুদ্ধ উর্দু শোনার সৌভাগ্য তো হয় না বেশি।
- আমি আজ জিজ্ঞাসা করব।
- কী? উনি বাঙালি কি না?
- হ্যাঁ। হয়তো আসলে অবাঙালি। এতদিন এ পাড়ায় ঘুরে ঘুরে বাংলা শিখে গেছে।

আবার নীরবতা। এ নীরবতা কনফিডেন্স কমানোর নয়, এ নীরবতা সতর্কতাসূচক। পরিস্থিতি কোন দিকে ঘুরতে চলেছে সেটার আঁচ না পাওয়ার।

- আমি বলি কি, জল বাঙালি দিল না পাঞ্জাবি না তামিল, সেটা তো ইম্পরট্যান্ট নয়।
- জিজ্ঞাসা করব না বলছ?
- হ্যাঁ, কী লাভ?
- সেই . . . ধুস, এসব কী দেখাচ্ছে, চেঞ্জ কর তো, রিমোটটা গেল কই?


কমিউনিকেশন। 

ওপরের একটি পরামর্শও যদি গ্রাহ্য না করেন, সব ভালো কথা যদি এক কান দিয়ে ঢুকিয়ে অন্য কান দিয়ে বার করে দেন, তবু আমার এই কথাটা মেনে চলবেন। না হলে নিজেরাই ভুগবেন, তখন আমার কাছে কাঁদতে আসবেন না। মনে রাখবেন কমিউনিকেশন ইজ ‘কি’।

ঝামেলাটা হচ্ছে কমিউনিকেশন কি হতে পারে কিন্তু কী কমিউনিকেট করবেন সেটাও ক্রুশিয়াল। একে অপরকে নিয়ে কথাবার্তা এড়িয়ে চলুন। যারা সর্বক্ষণ নিজেদের নিয়ে কথা বলে তাদের আমি দু’চক্ষে দেখতে পারি না। শুধু আমি কেন, কেউই পারে না। তাছাড়া নিজেদের নিয়ে কথা বলতে গেলে কীই বা বলবেন---হয় চুলকাটার তাড়া লাগিয়ে ব্যতিব্যস্ত করবেন নয় পেপারের হাল নিয়ে খুঁচিয়ে প্যালপিটেশন বাড়াবেন। কাজেই ও পথে না যাওয়াই ভালো।

নিজেরা বাকি গেলে বাকি থাকে আত্মীয়স্বজন, বাড়ির লোক। পাগল কুকুরে না কামড়ালে ও ব্যাপারে মুখ খোলে না কেউই, আপনারাও যে খুলবেন না সে ভরসা আমার আছে।

কাজেই বাকি রইল পর। যাদের সঙ্গে কোনও রক্তের সম্পর্ক নেই, নাড়ীর টান নেই, পুরোনো বন্ধুত্বের আরাম নেই। বেসিক্যালি পৃথিবীশুদ্ধু লোক। তাদের নিয়ে এন্তার চর্চা করুন। যত্রতত্র, যখনতখন। যে কোনও রকম চর্চাই চলতে পারে, তবে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে দেখেছি, প্রশংসার থেকে গালিগালাজ, সম্পর্কের স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশি উপকারী। এ পৃথিবীতে খুব কম জিনিসই পি এন পি সি-র মতো বন্ডিং সৃষ্টি করতে পারে। মনে রাখবেন কাউকে নিয়ে আড়ালে কথা বললে যাকে নিয়ে বলছেন তার কোনওরকম ক্ষতি হয় না, নিজের বিবেকটা খালি আরেকটু কুঁচকেমুচকে যায়। বন্ডিং-এর মুখ চেয়ে বিবেককে চুলোর দোরে পাঠান ও তেড়ে নিন্দে করুন। আজকালকার যান্ত্রিক জীবনে হাসির সুযোগ এত কমে গেছে, চান্স পেলেই লোকজনকে নিয়ে হাসুন। লোকজনের বোকামি দেখে শিহরিত হন, নিজেদের বুদ্ধিমত্তা ও ‘অন্যরকম’ত্বে বিমোহিত থাকুন। দেখবেন, সম্পর্ক দেখতে দেখতে জিব্রাল্টার রকের মতো টেঁকসই হয়ে উঠবে।

ব্যস। এই ক’টা টিপস যদি মেনে চলতে পারেন, তবে কোনও নারদমুনির সাধ্য নেই আপনাদের দাম্পত্যজীবনে ঝগড়া বাধাবে, কোনও মা মনসার চ্যালার মুরোদ নেই আপনাদের অনন্ত সুখের বাসরঘর ফুটো করে ঢুকবে। মাঝরাতে ঘুম ভেঙে পাশে ঘুমন্ত লোকের মুখে চোখ পড়ে গিয়ে যদি মনে হয়, ‘এ না হয়ে যদি অন্য কেউ . . .’ এই মে মাসের তালপাকানো গরমেও সারাশরীর দিয়ে আতঙ্কের ঠাণ্ডা স্রোত বয়ে যাবে। যাবেই।

বিয়ে পাক্কা একটি বছর পুরোনো হয়ে গেলেও।


44 comments:

  1. Jata hoeche Kunatala di! Sab upodesh tuke nichhi (fichel hasi)
    Aar happy anniversary to both of you! taarikh ta 11th May na? belated tahole :)
    Kintu mushkil hochhe, eto bhalo lekha ta kauke translate kare shonano jabe na..sei essence ta-i harie jabe!

    ReplyDelete
    Replies
    1. আমি সবসময়েই সবাইকে বলি খুশি হয়েছি, এবং সত্যি সত্যি খুশি হইও, কিন্তু কোয়েল, তুমি যে আমার বিয়ের তারিখটা ঠিকঠিক মনে রেখেছে, এইটায় জাস্ট, যাকে বলে জাস্ট খুশি হয়েছি। থ্যাংক ইউ ভেরি মাচ।

      Delete
    2. ওহ, একটা জিনিস এতক্ষণে সন্দেহ হচ্ছে, তোমার বুঝি টিপসগুলো অনুবাদ করে শোনানোর লোক আছে? ভেরি গুড। আমি শিওর তোমার নিজস্ব সেট অফ টিপস থাকবে, তুমি সেগুলো সাফল্যের সঙ্গে মেনে চল, এই কামনা করে রাখলাম।

      Delete
    3. Hehe..mane ache/nei ..oi aar ki! :) tobuo, thanku thanku!

      Delete
  2. eta pore khub haslam.... happy anniversary :) satti toh bhadroloker-i dosh..khamoka ato din dhare hindi shunchei ba keno ! :p

    ReplyDelete
    Replies
    1. tobe oi অবিবাহিতরা উত্তর আকাশের নক্ষত্রের মতোই সুদূর ও গ্ল্যামারাস হয়ে উঠেছে ..eta je ki sotti ,jato din jacche bujhchi :)

      Delete
    2. সিরিয়াসলি। একা থাকার গ্ল্যামারই আলাদা। অবশ্য আমি ভয়ানক নন-গ্ল্যামারাস সিংগলহুড কাটিয়েছি, কিন্তু সে আমার নিজের দোষে।

      Delete
  3. Subho bibahobarshiki didvai!!! ar upodesh gulor jonno onek onek dhnnyobad. Ye,bolchi ki, egulo ki prem korara khetreu sotti?????

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ অর্ণব। না না, প্রেমের টিপস এক্কেবারে আলাদা। লক্ষ লক্ষ টিপস। কিন্তু যে টিপসটা জানলে বাকি আর একটাও না জানলে চলে যাবে সেটা হচ্ছে 'ছাড়িত হওয়ার আগে ছাড়বে'। ব্যস্‌।

      Delete
    2. এটা জাস্ট ফাটাফাটি। :D

      Delete
    3. সত্যি এই টিপস টা সবথেকে দরকারী |

      Delete
  4. শুভ বিবাহবার্ষিকী কুন্তলা-অর্চিষ্মান। :)
    টিপস্‌গুলো আমার বেশ পছন্দ হয়েছে।

    ReplyDelete
    Replies
    1. অনেক ধন্যবাদ অরিজিত।

      Delete
  5. বিবাহিত জীবনের বাকি বছর গুলো-ও প্রথম বছরের মতই ভালো কাটুক!

    ReplyDelete
    Replies
    1. টিপস গুলো খুব ভালো| আমিও মেনে চলার চেষ্টা করি| একজন জামা ইস্তিরি করবে আরেকজন নেলপালিশ লাগাবে, একজন IPL দেখবে আরেকজন রয়াল স্টোরি খেলবে, একজন রান্না করবে আরেকজন চেখে দেখবে.. ;)

      Delete
    2. আহা, এ'রকম হলে যে কী ভালোই হত।

      Delete
  6. Happy anniversary Kuntala. Tipsgulo eto perfect je mone holo issshhh, biyer agey jodi ektu eyi dhoroner kichu petam ... at least oi unmarried bondhuder kothata. :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ্‌ শর্মিলা।

      Delete
  7. আপনি হিন্দিটা চালিয়ে যেতে পারেন, বেশ লাগছে। :-)

    কিন্তু অবিবাহিত অবস্থায় এতকাল কাটিয়ে দিলাম, গ্ল্যামারের ছিটেফোঁটাও চোখে পড়ছেনা কেন বলুন তো? এ কি সেই নদীর এপার-ওপারের গল্প?

    আমরা ছোটবেলায় যেমন বলতাম তেমন ভাবেই বলি, বিয়ের জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। সঙ্গে এই গানটা

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহাহা, বিয়ের জন্মদিনটা দারুণ। অ্যাকিউরেটও বটে। হিন্দির কথা আর বলবেন না। দিনে দিনে খারাপ হচ্ছে। গ্ল্যামার চোখে পড়েনি সে আপনার নিজের দোষে। আমারও পড়েনি। গানটা খুব খুব পছন্দ হয়েছে আমার। থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ।

      Delete
  8. Happy Anniversary! Amaar aar tips diye kaaj nei-too late. Jaanleo kaaje laagaate paartaam naa. Archisman-o ki same set of tips follow kare? Post baby set of tips-e aaro du akta number sangjojon habe asha kori.
    Lekhata tomaar classic style-khub haaslaam.
    Amita

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ অমিতা। অর্চিষ্মান কিছু টিপস তো মেনে চলেই নিশ্চয়, চলতেই হয়, কিন্তু সেগুলো আমি জানি না।

      Delete
  9. মারাত্মক ! একেই এই !

    ReplyDelete
    Replies
    1. তবেই বুঝুন, কাকলি।

      Delete
  10. অ। আমি তো পড়ছিলাম আর ভাবছিলাম ক্লাইম্যাক্স কখন আসবে। তাপ্পর লাস্ট লাইনে পেলাম। হ্যাপি অ্যানিভার্সারি।

    কিন্তু আপনার একটা লাইনে আমি ভয়ানক এক্সেপশন নিয়েছি।

    "এই ক’টা টিপস যদি মেনে চলতে পারেন, তবে কোনও নারদমুনির সাধ্য নেই আপনাদের দাম্পত্যজীবনে ঝগড়া বাধাবে"

    মানেটা কি হল? ঝগড়া হবে না? কেন? সাধ করে কেউ ঝগড়া কমায় নাকি? ঝগড়া কমালে যে মাথার চুল, ব্লাডপ্রেশার, দাঁতের জোর সব কমে যায় তা জানেন?

    আপনার অ্যানিভার্সারি তো আমি সেলিব্রেট করে ফেললাম। আপনাদের বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে এগারো তারিখ আমাদের কলেজের বন্ধুদের রিইউনিয়ন হল কনট প্লেসে।

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে দেবাশিস থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ। খুব ভালো লাগল আপনার শুভেচ্ছা পেয়ে। আরে আপনি দেখছি আমার মায়ের মতো বলছেন। স্বামীস্ত্রী নিজেদের মধ্যে সাংঘাতিক 'সিভিল' আচরণ করছে দেখলেই মা রায় জানিয়ে দেন। গোলমাল আছে। নির্ঘাত। ওটা সংসার হচ্ছে না, অভিনয় হচ্ছে। আর স্বামীস্ত্রীর একে অপরের সঙ্গে অ্যাক্টিং করা নাকি পৃথিবীর সেরা তিনটে (মায়ের মতো একটা) দুর্ভাগ্যের মধ্যে পড়ে।

      কনট প্লেস? আহা সে তো আমার পাশের পাড়া। আশা করি খুব আনন্দ করেছনে।

      Delete
  11. Ek bocchorei eto gyan bere gelo Kuntala. Tomar hobe! Ek bocchor purtir jonney onek obhinondon!

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা রুণা, আরে জ্ঞানের ঝুলি খালি হতে এখনও অনেক অনেক দেরি। রোজই নতুন নতুন শিক্ষালাভ হচ্ছে, তাড়াতাড়ি না শিখলে শেষে দেখব পরীক্ষা এসে গেছে, সিলেবাস এখনও পুরো বাকি। তোমার শুভেচ্ছার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  12. happy anniversary kuntaladi :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ, স্বাগতা।

      Delete
  13. "Happy anniversary !!!" tomader dujonkei onek subhechha.

    Tips gulo darun. tobe amaro kintu etai mone hoi .... tumi ja likhechho "...স্বামীস্ত্রী নিজেদের মধ্যে সাংঘাতিক 'সিভিল' আচরণ করছে দেখলেই মা রায় জানিয়ে দেন। গোলমাল আছে। নির্ঘাত। ওটা সংসার হচ্ছে না, অভিনয় হচ্ছে। ...." tobe oi jhogratar seshe dujonei abar tomar tips e phire gelei hobe . :-D

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, ইচ্ছাডানা। মাকে বলব, আপনি মায়ের কথায় সহমত জানিয়েছেন।

      Delete
  14. আমার মত যদি শুনতে চাও তাহলে সুথী দাম্পত্যের প্রধান উপকরণ হচ্ছে কানে না শোনা এবং গায়ে না মাখার অপরিসীম ক্ষমতা। ব্যাখ্যা করছি না, নিজ নিজ অভিজ্ঞতাবলে বুঝিয়া লইবেন। আশা করি প্রথম বিবাহবার্ষিকী খুব আনন্দে কেটেছে। আগামীগুলোও আনন্দে কাটুক।

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, অদিতি। তোমার টিপসদুটো দারুণ। আমি আরেকটা অ্যাড করব। বেফাঁস কথা না বলার সংযম। তাহলেই পারফেক্ট।

      Delete
  15. are didi..amar chakri jibon ar apnar bibahito jibon je ekebare same boyeshi..amio last may maash ebari ghar dor chhere tamil nadu te udvastu hoe esechi.biye ba prem er obhigyota nei,but 10*10 ghare 3 jon cheler sathe thakar obhigyorta ache to,tai bujhi apnar deowa befaNs kotha na bola ebong kono kotha e gaaye na makhar poramorsho ta ki bhison sotti..bhalo thakben..sukhe thakben..baki bochor gulo o prothom bochor er moto ghotona moy hoye uthuk.

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, থ্যাংক ইউ ঋতম। খুব ভালো লাগল তোমার শুভেচ্ছা পেয়ে। আহা, উদ্বাস্তু কেন, আমি নিশ্চিত চেন্নাই তোমাকে এতদিনে আপন করে নিয়েছে। রুমমেটের সঙ্গে থাকাটা সত্যিই বেশ দক্ষতার দাবি করে। আমি শেষ রুমমেটের সঙ্গে থেকেছে দু'হাজার ছয়ে, এখন ব্যাপারটা কল্পনাই করতে পারি না। অবশ্য অর্চিষ্মানের সঙ্গে থাকাটাও একধরণের রুমমেটের সঙ্গে থাকাই হল, তবু। তোমার শুভেচ্ছার জন্য আবারও অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  16. Kuntalidi_Archishman da, Happy ANniversary!! hi FIVE TO JOY!! TOBUO অবিবাহিতরা উত্তর আকাশের নক্ষত্রের মতোই সুদূর ও গ্ল্যামারাস হয়ে উঠেছে pore jodio KINCHIT atmoslagha bodh korchi..amader jotoi heche keshe eksha state hok na keno, lokjon oi swadhinata dekhe jolbe ar luchir moto fulbe,ar amra muchki heshe beriye jabo ei kalponik drishyota bhebe ekta Ahh..beriye elo..tobe kuntaladi, je bhodrolok pachtar bodole tinte choya dhekurer logic dite paren tar marattok sense of humour er proshonsha na kore pachchina!.nah, korta ginni eke oporer shOthe shAthyan..:) jai hok, unmarried der frustu katanor,( bisheshoto jara nijera khujte pare na ar khujte gelei ghete ghO hoye jay tader jonyo) jonyo ekta utsahobyanjok lekha lekho deki..

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে পারমিতা, থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ। তোদের গ্ল্যামার দেখে সত্যিই আমি হিংসেতে জ্বলেপুড়ে মরছি। আমার জীবনের এখন সবথেকে ইন্টারেস্টিং প্রশ্ন এসে ঠেকেছে, 'আজ রাত্তিরে আমরা কী খাব?"-তে। তবেই বোঝ। কাজেই ফ্রাস্টেশনের কোনও জায়গাই নেই। শুভেচ্ছার জন্য আবারও অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  17. sotti..pn pc r kono jobab nei, eta amio mani :P

    ReplyDelete
    Replies
    1. যা বলেছ, কুহেলি।

      Delete
  18. amar neighbor ra completed 66 years together, tarpor o jiggesh korle bollen je tara janen na je thik ki secret for a happy married life.....apnar ei code 1 year ei solve hoye geche shune ami onader eta pore shonabo thik korlam:-)

    ReplyDelete
    Replies
    1. এই রে, এই কাজটি করবেন না। আমার বালখিল্যতা দেখে ওঁরা হেসে কুটিপাটি হবেন। কী দরকার লোক হাসিয়ে।

      Delete
  19. Bah dekhte dekhte ek bachhor er anek abhinandan. Tinte tips-i besh. Tobe pnpc ta best tip.

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ, রুচিরা।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.