January 03, 2016

ছবিতে ২০১৫



ঘেঁটেঘুঁটে দেখছি বছরের প্রথম মাসে আমরা তেমন কিছুই ইন্টারেস্টিং করে উঠতে পারিনি। সেটার একটা কারণও ছিল অবশ্য। আগের মাসেই লখনৌ ঘুরে আসা হয়েছে। ওই হট্টগোল  ওই ভুলভুলাইয়া, রেসিডেন্সির ওই গুলিগোলায় ফুটিফাটা ইতিহাস, সর্বোপরি ওই বিরিয়ানি আর কাবাবের অভিজ্ঞতা থেকে রিকভার  করারও একটা ব্যাপার ছিল। ইন ফ্যাক্ট, দুহাজার পনেরোর শুরুটাই শুধু নয়, গোটা দুহাজার পনেরোটাই লখনৌ-ময় হয়ে ছিল বললে বাড়াবাড়ি হবে না। দিনদুয়েক ছুটি পেলেই মনে হচ্ছিল যাই আরেকবার রেসিডেন্সিটা ঘুরে আসি। তাছাড়া ফেরার পর আমাদের অফিসের লখনৌয়ি কলিগের মুখে শুনলাম দস্তরখোয়ানের বিরিয়ানি, যেটা আমরা খেয়েছি, সেটা ভালো হলেও বেস্ট নয়। বেস্ট কোনটা সেটা তিনি বলেওছিলেন, এই মুহূর্তে মনে পড়ছে না। পরের বার যাওয়ার আগে জেনে নিতে হবে। কাজেই দুহাজার পনেরোর জানুয়ারির মূল সুর যদি কিছু থাকে তবে তা নিঃসন্দেহে লক্ষ্মণাবতীর স্মৃতি


ফেব্রুয়ারিতে অর্চিষ্মানকে ফেলে রেখে অফিসের সঙ্গে আমি সারিস্কা ঘুরে এলাম।
 

গরম পুরো পড়ার আগেই মার্চ মাসে যাওয়া হল সাঁচি-ভীমবেটকা


এপ্রিলে বলার মতো বেশি কিছু ঘটেনি। খালি একদিন মাটন স্টু রেঁধেছিলাম, সেই প্রমাণটাই আরেকবার দেখাই আপনাদের।


মে মাসে আমার সপ্তাহখানেকের বনবাস হল।



বনবাস সেরে ফিরে জুন মাসে যাওয়া হল ম্যাকলয়েডগঞ্জত্রিউন্ড ট্রেকটেক (শেষের আধঘণ্টাখানেক আর রাতের পায়ের ব্যথা বাদ দিয়ে) মিলিয়ে দারুণ লেগেছিল।



জুলাইয়ের ঘোর গরমে দুপুরবেলা কেউ যে জাদুঘর দর্শনে বেরোতে পারে সেটা কেন জানি বিশ্বাস হচ্ছিল না। অথচ ছবি তো মিথ্যে বলে না।


অগস্টে পূর্বস্মৃতি ভুলে ডালবাটিচুরমা আরেকবার চেখে দেখলাম। আগেরবারের ভয়ানক খারাপ লেগেছিল, এবার ভয়ানক ভালো। ডালবাটিচুরমা আমাদের সত্যি সত্যি কেমন লাগে বিচার করতে হলে তাই আরেকবার ব্যাপারটা চেখে দেখা জরুরি।


সেপ্টেম্বরে তেমন বিশেষ ইন্টারেস্টিং কিছু করা হয়নি। আধচিনিতে পার্সি দোকান রুস্তম’স-এ খাওয়া ছাড়া।


দিল্লির পুজো সাধারণত আমাদের চিত্তরঞ্জন পার্কের প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরেই কাটে। এ বছর সে নিয়ম ভেঙে আমরা আশপাশের দুয়েকটা জায়গার পুজো দেখতে গিয়েছলাম। তার মধ্যে বলার মতো হচ্ছে কাশ্মীরী গেটের দিল্লির সবথেকে পুরোনো দুর্গাপুজো।



নভেম্বরে ভাইয়ের বিয়ের ছুতো করে রাঁচি আর কলকাতায় একটা ঝটিকাসফর হল।



কিন্তু ওস্তাদের মার বাকি ছিল শেষ রাতে। হাতির পিঠে চড়ে গণ্ডারের সঙ্গে গ্রুপ ফোটো। এই অভিজ্ঞতাকে দুহাজার ষোল টেক্কা দিতে পারবে আশা নিয়ে দুহাজার পনেরোর খাতা বন্ধ করলাম।




8 comments:

  1. tomar rewind dekhe bejaye hingse hocche. ami 2015 te khali Darjeeling ar Ajodhya pahar ghurte gechilam.
    Happy new year Kuntala di. :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. তোমাকেও নতুন বছরের অনেক শুভকামনা আর ভালোবাসা জানাই, কুহেলি। নতুন বছর খুব খুব ভালো কাটুক। তুমি যে দুটো জায়গায় গেছ, দুটো জায়গাতেই যাওয়ার জন্য আমরা হেদিয়ে আছি, কাজেই হিংসে এতরফেও কিছু কম নেই।

      Delete
  2. Baah sarabocchorer albumta darun :) Notun bochhorer onek onek shubhechha apnake :-)
    Bhalo thekben ar emoni katuk notun bochhortao :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনারও নতুন বছর খুব ভালো কাটুক, সায়ন।

      Delete
  3. darun post. notun bachhor khub bhalo katuk

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনারও নতুন বছর দারুণ কাটুক, ইচ্ছাডানা.

      Delete
  4. Notun bochhorer anek shubhechha tomader ke :)
    Bratati.

    ReplyDelete
    Replies
    1. তোমাদেরও নববর্ষের অনেক শুভেচ্ছা জানাই, ব্রততী। নতুন বছর খুব ভালো কাটুক।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.