July 10, 2013

রামাদানের প্রাক্কালে



আজ শেষরাত থেকে রামাদান শুরু হয়েছে। বিশ্বাসীরা এইসময় প্রায় একমাস ধরে দিনের দীর্ঘসময় ধরে উপবাস পালন করবেন। মুখে জল পর্যন্ত দেবেন না। আমাদের সহকর্মীদের মধ্যে দু’জন রামাদান পালন করছেন। বাড়িতে থাকলে নিশ্চয় তাঁরা গতকাল রাতে আত্মীয়পরিজনের সঙ্গে বসে গল্প করতে করতে ভালো ভালো খাবার খেতেন। আমরা আত্মীয় নই তো কী হয়েছে, বন্ধু তো বটে। আর প্রবাসে বন্ধুর থেকে বড় স্বজন আর কে আছে?

সিটি সেন্টারের কাছেই রোজেস্‌ নামের ইট্যালিয়ান রেস্টোর‍্যান্ট। দূর থেকে রক্তগোলাপ রঙের সারি সারি ছাতা মেলা দেখলেই চেনা যায়। সেখানে সবাই মিলে রামাদান ইভ পালন করতে নৈশভোজে যাওয়া হয়েছিল। খাওয়া হল, গল্প হল, কখন যে সন্ধ্যে গড়িয়ে রাত্রি নেমে এল টেরই পেলাম না। তখন আমাদের দেখলে কে বলত আমরা কেউ কাউকে একমাস আগে চিনতামই না। এই দেখুন কাল বিকেলের কয়েকটা ছবি। 





24 comments:

  1. Replies
    1. ওই কফি কাপটা আমার মনস্বিতা।

      Delete
  2. bah ! ki sundar chobigulo :-) mukh na dekhie mejaj bojhanor kaydata amar besh pachanda hoyeche

    ReplyDelete
    Replies
    1. হ্যাঁ কী দরকার অন্যের মুখ নিজের ব্লগে দেখিয়ে। তাও তো কিছু কিছু মুখ বোঝা যাচ্ছে, না গেলেই ভালো হত।

      Delete
    2. khub sundor o porinoto chinta...

      Delete
  3. bah jamjamat byapar...ar hyan chabigulo besh bhalo hoechhe!! :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ। সত্যি খুব ভালো কেটেছিল সন্ধ্যেটা।

      Delete
  4. vari onyay...sudhu chobi diye mon volale khelbona kintu...lekha chai lekha....:)

    ReplyDelete
    Replies
    1. সরি রাখী। রোজ আসলে লেখা মাথায় আসে না। কিন্তু আবার অবান্তর খালি ফেলে রাখতেও মন চায় না।

      Delete
  5. কি জম্পেশ ডিনার, বাব্বাঃ। খালি লোভে লোভেই দিন গেল।
    একটু বেসুর একটা কথা, শব্দটা কি রমজান নাকি রামাদান?

    ReplyDelete
    Replies
    1. বেসুরের কিছু নেই মালবিকা। আমিও ছোটবেলায় ওটাকে রমজান বলেই জানতাম। "রমজানের ওই রোজার শেষে এল খুশির ঈদ"... কিন্তু বড় হয়ে জানলাম সবাই ওটাকে রামাদান বলে। যারা পালন করে তারাও, উইকিপিডিয়াও। তাই আমি রামাদান লিখলাম।

      Delete
    2. This comment has been removed by the author.

      Delete
  6. UP-bihar belt e otake ramzzan e boley. kintu ota tow hindustani bhasha...jate bazar ke bajaar, baazuband ke bajuband aar arzoo ke arju boley :)
    kintu amar bapu amader hindustani belt e beshi pochondo :)

    ReplyDelete
  7. amader chotobelay ramazzan er ei kobita ta khub popular chilo.
    marhaba marhaba aaya ramzzan hai
    dil ko khushi aar imaan ko aram hai

    (dushto chelepile ra abar oi line ta te khabar niye rosikota kore...peet ko aram hai!! lagato)...uff iftari khabar gulor katha bhebe jib e jol eshe gelo :(

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহাহা, ছড়াটা দারুণ শম্পা, মানে "পেট কো আরাম হ্যায়" ওয়ালা ছড়াটা। জে এন ইউ-তে থাকার সময় ইফতারের ভোজ খেতাম হোস্টেলে। দারুণ ব্যাপার সত্যি।

      Delete
    2. ekbar plizz jammu and kashmir house (dilli'r) canteen e iftar e jeyo. ektu pati jayga theek-i, kintu anek hi fi lokjon o jay...online rsvp hoy. durdanto iftaari.

      Delete
    3. আরে পাতি কী বলছ গো শম্পা। আমি গেছি তো, গিয়ে অশ্বমেধের ঘোড়ার ডিমের সাইজের গুশ্তাবা খেয়ে, প্যাক করে নিয়েও এসেছি। আরেকটা কী যেন সাদা মতো ঝোল খেয়েছিলাম, দাঁড়াও উইকি দেখি...ইয়েস, ইয়াখ্‌নি...দারুণ লেগেছিল। আর ডাইনিং রুমটা কী সুন্দর না? একটাই মাইনাস পয়েন্ট, দারোয়ানগুলো মহা ঝামেলা করে। এমন ভাব দেখায় যেন সোজা আই এস আই হেডকোয়ার্টার্‌স্‌ থেকে আসছি। জঘন্য।

      ইফতারে কোনওদিন যাইনি। এবার তো হল না, নেক্সটবার যাবই। খবর দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

      ওহ্‌, নেক্সট টু নেক্সট উইকএন্ডে রাইন বোট ট্যুরে যাওয়া হচ্ছে।

      Delete
    4. amar tomar janne paati na...kintu dilli te ja shob hi fi lokjon e bahar. jama masjid er goli te khetam bolle sabai ulte pore :)

      Delete
  8. Kaachhe-pithe kono mediterranean dokaan achhe ? sheta adorsho hobe iftar bhojoner jonye, italian menur thekeo.

    ReplyDelete
    Replies
    1. আছে শ্রমণ। কিন্তু সেখানে আমরা মাঝে মাঝেই খাই। তাছাড়া যাদের জন্য খাওয়া, তারা পাস্তা খেতে চাইল আর আমরাও তাদের ইচ্ছে শিরোধার্য করে ইট্যালিয়ান দোকানে গেলাম।

      Delete
  9. ki darun chhobi. ar khub sundor ekta sondhye sottii :-)

    ReplyDelete
    Replies
    1. দারুণ সন্ধ্যে কেটেছিল সত্যি ইচ্ছাডানা।

      Delete
  10. চোখ আছে মশাই আপনার। আমাদের কলেজেও তো ক্যাম্পাস জুড়ে ওরকম ছাতা আছে, ওই রঙেরই। কই কোনও দিন তো গোলাপের কথা মনে হয়নি দেখে! আর ছবিও খুবই ভালো হচ্ছে।

    ReplyDelete
    Replies
    1. ইস আপনি ছবির প্রশংসা করলে এত ভালো লাগে না। থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.