May 03, 2015

বিগ বং থিওরি




সি আর পার্কের লোক যখন বাঙালি খাবার খেতে পাড়ার বাইরে যায় তখন বোঝা যায় সময় বদলাচ্ছে। অবশ্য সময় বদলানোরই জিনিস, না বদলালেই চিন্তার কথা। বেশ কিছুদিন ধরেই কানাঘুষোয় বিগ বং থিওরি-র নাম কানে আসছিল। কাল বিকেলে আমরা গিয়েছিলাম চক্ষুকর্ণের বিবাদভঞ্জন করতে।

শাহপুর জাটের একশো বাইশ নম্বর বাড়ির একতলায় বিগ বং থিওরির ছোট্ট দোকান। নম্বর দিয়ে ও তল্লাটে বাড়ি খোঁজার চেষ্টা করা অবশ্য খড়ের গাদায় সূচ খোঁজার সময় তবুও গোড়াতে আমরা সেই চেষ্টাই করছিলাম। মিনিট পনেরো এ গলি ও গলি ঘোরার পর বুদ্ধি খুলল। ফোন করে বললাম, “হারিয়ে গেছি, রাস্তা বলে দিন।” শুনলাম যেখানে দাঁড়িয়ে আছি সেখান থেকে সোজা নাকবরাবর হাঁটলে স্টেট ব্যাংক, ব্যাংক পেরিয়ে ডানদিকে বেঁকলে স্লাইস অফ ইটালি, স্লাইস অফ ইটালির পাশে পার্ক, পার্কের পেছনে বিগ বং থিওরি। জলের মতো সোজা রাস্তা, হারাতেই প্রতিভা লাগে।

দুপুরবেলায় গিয়ে ভাত মাছ খাওয়া যেত কিন্তু অত রোদে বেরোতে ইচ্ছে করল না। তাছাড়া বিগ বং থিওরির মেনুতে ভাতমাছের থেকেও অন্য একটি বিষয় চোখ টেনেছিল বেশি।


হাই টি। বিভিন্ন রকম চপকাটলেট, বড়া, ভাজাভুজি সহকারে চা। ও ফেলে ভাতডাল খাবার কোনও মানেই হয় না।

গিয়ে অবশ্য প্ল্যান খানিক বদল হল। ভদ্রমহিলা বললেন গরমের জন্য হাই টি-র মেনুতে খানিক পরিবর্তন হয়েছে। আর বললেন যে আমাদের ফিশ ফ্রাই আর প্রন ওরলিটা খেয়ে দেখুন ভালো লাগবে। কাজেই আমরা চায়ের সঙ্গে আলাদা আলাদা ‘টা’ অর্ডার করলাম।

ডালের বড়া

প্রন ওরলি

ফিশ ফ্রাই

লেমন টি আর দূরে বাঁ দিকে আমাদার শরবত।

দুপুরের খাবার না খেতে যাওয়ার সিদ্ধান্তটাতে নিজেরাই নিজেদের হাই ফাইভ দিতে ইচ্ছে করছিল। আমি নিশ্চিত ভাত, চিংড়ি মাছের মালাইকারি, আলু পোস্তও ওঁরা চমৎকার বানান, কিন্তু ওপরের এই সব জলখাবারেরে পদ যা বানিয়েছিলেন তা ভাষায় প্রকাশ করা আমার সাধ্য না। বিশেষ করে ফিশ ফ্রাইটা। এতা ভালো ফিশ ফ্রাই আমি খুব কম খেয়েছি। গরম, মুচমুচে, হালকা। ইচ্ছে করলেই আমরা তক্ষুনি বসে আরও দু’প্লেট খেয়ে ফেলতে পারতাম, অনেক কষ্টে থামতে হয়েছে। সঙ্গে তিন চার রকমের যে চাটনি ছিল সেগুলোও সমান সুস্বাদু।

বিগ বং থিওরি খুলেছে মোটে চার মাস। নবজাতকই বলা চলে। বেরোনোর আগে ভদ্রমহিলা এসে বললেন আমরা যেন সবাইকে বলি আসার কথা। এই আমি আপনাদের বলছি। আপনারা যদি দিল্লিতে থাকেন আর যদি কোনওদিন সময়সুযোগ হয় আর বাড়ির বাইরে বাঙালি খাবার খেতে ইচ্ছে করে তবে শাহপুর জাটের বিগ বং থিওরি ট্রাই করে দেখতে পারেন। ভালো লাগবে।

*****

Big Bongg Theory
Address: 122, Shahpur Jat, Siri Fort, New Delhi, Delhi 110049, India
Phone:+91 11 4305 8327



18 comments:

  1. বাঃ! ছবিটবি দেখে তো বেশ জম্পেশ বলে মনে হচ্ছে। :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. ব্যাপারটা জম্পেশই ছিল, অরিজিত।

      Delete
  2. ki kaydar dokan re..ar amader parar Kolkata club 10 bacharer purono sudhui chandrabindu er "gaan bhalobeshe gaan " chalie jacche..ar tatei bombay er bangalira nostalgic hoye pore...postcard er idea abdi pounchote pareni

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা, এটা মনে হয় এজ গ্রুপের ব্যাপার, তিন্নি। দেখ গিয়ে যাদের দোকান তারা সব আমাদের বয়সী। চন্দ্রবিন্দুকেই কুলনেসের চরম বলে জেনে এসেছে, সে বিশ্বাস বদলানোর আর সুযোগ পায়নি। তার আগেই চুল পেকে গেছে।

      Delete
  3. Ki bhalo bhalo khabar khas re tora... Ami delhi te na thakleo ei khabar gulor lobh a delhi jete iche korche..

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে ভট্টা, ভালো খাবার দায়ে পড়ে খাই। বাড়ির রান্না এর থেকে অনেক ভালো। সে পরিশ্রম করার ইচ্ছে নেই্‌ তাই অগত্যা দোকানের ভালো খাবার খেতে হয়।

      Delete
  4. darun lobh dilam ekhan theke :P

    ReplyDelete
    Replies
    1. নো প্রবলেম, চুপকথা। বন্ধুদের লোভ দেওয়ায় পেট খারাপ হয় না।

      Delete
  5. dhut Delhi te thakina to.. :( kokhono time niye gele dekha jabe.. eto lobhoniyo restaurant er kotha lekho tumi... eta CR park theke ba safdarjung enclave theke koto dure? orli ar fishfry amar khub favorite.. postcard er idea ta chomotkar...

    ReplyDelete
    Replies
    1. সফদরজং এনক্লেভ থেকে বলতে পারব না, ঊর্মি। সি আর পার্ক থেকে অটোতে ঠিক ষাট টাকা মিটারে ওঠে। তোকে অত ঠিকানা জানতে হবে না, তুই দিল্লি এলে বলিস, আমি নিয়ে যাব।

      Delete
  6. amio dilam lobh :( --Pradipta

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা, ইউ আর মোস্ট ওয়েলকাম, প্রদীপ্তা।

      Delete
  7. আমাকে তো যেতেই হবে ।
    মিঠু

    ReplyDelete
    Replies
    1. মিঠু, গিয়ে দেখো, মনে হয় ভালো লাগবে।

      Delete
  8. চেন্নাই তে একটা সাংঘাতিক ভালো বাঙালি খাবারের দোকান কাম আড্ডা খানা আছে। নাম পেটুক। এক ভদ্রলোক পেশায় আই টি -র ম্যানেজার, নেশায় ফোটোগ্রাফার। তিনি খুলেছেন। রিভিউ গুলো দেখুন।।দারুন।কখনো এলে আসবেন অবশ্যই।
    https://www.zomato.com/chennai/restaurants?q=petuk

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে থ্যাংক ইউ, ঋতম। নিশ্চয় যাব। এই বুকমার্ক করে রাখলাম। সাউথ ইন্ডিয়া বেড়াতে যাওয়া হয়নি বহুদিন। গেলে চেন্নাইতে তো একবার ঢুঁ মারবই, আর সেই সঙ্গে পেটুক-এও।

      Delete
  9. Replies
    1. হাহা, দীর্ঘশ্বাস ফেলো না, কুহেলি। আমি নিশ্চিত কলকাতায় এর থেকে ঢের ভালো ভালো দোকান আছে।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.