June 08, 2016

আসল কারণ



গত কয়েকদিনে কয়েকটা ঘটনা পরপর ঘটল।

এক, সিপ্রালেক্স ফুরিয়ে গেল। আমি কিনতে গেলাম না। দেখিই না কী হয় বলে ঘাপটি মেরে বসে রইলাম।

অ্যাকচুয়ালি, ঘটনা একমাত্র এটাই। বাকি সব এটার প্রতিক্রিয়া।

দু’নম্বর ঘটনাটা হচ্ছে একটা কাজ আমার করার ছিল যেটা আমি করতে পারলাম না। কমপ্লিটলি নিজের দোষে। জাস্ট করলাম না। অপেক্ষা করে করে সময় ফুরিয়ে গেল। এই পরিণতি যে হতে চলেছে সেটা আমার জানা ছিল, কিন্তু একতরফা ম্যাচও যতক্ষণ শেষ না হচ্ছে ততক্ষণ কেউ স্টেডিয়ামের সিট ছেড়ে ওঠে না, টিকিট কেটে ঢুকেছে যখন শেষপর্যন্ত দেখেই যায়। এমনও নয় খেলার পরিণতিটা আমাকে খুব দাগা দিয়েছে, কারণ কে জিতবে কে হারবে সেটা নিয়ে আমার কোনও গরজ ছিল না গোড়া থেকেই, তবু খেলা যে শেষ সেটা জানাও তো একরকমের মনখারাপ।

অলরেডি নড়বড়ে ছিলাম, এমন সময় তিন নম্বর একটা ঘটনা আমাকে রোডিও ষাঁড়ের পিঠ থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিল।

শুনলাম একজন আরেকজনকে বলছেন, ধুস বাংলায় ব্লগ লিখে কী হবে? কেউ তো পড়বে না। যদি না লেখক সেকেন্ড রবীন্দ্রনাথ হন। সেরকম আছেন একজন-দু’জন, কিন্তু তাঁদের থাকা এটাই প্রমাণ করে যে বাকিদের ব্লগ লেখা, বিশেষ করে বাংলায়, পেছনে হেঁটে এভারেস্টে ওঠার চেষ্টা ছাড়া আর কিস্যু না।

আমি বাড়ি ফিরলাম। অটো ভাইসাবের হাসির জবাবে ঠোঁট বিস্তৃত করলাম। সিঁড়ি উঠতে উঠতে মনে মনে প্রার্থনা করতে লাগলাম, কেউ যেন এখন ওপর থেকে না নেমে আসে, কাউকে দেখে যেন আমাকে হাসতে না হয়, হাউ ডু ইউ ডু বলতে না হয়। তালা খুলে ঘরে ঢুকলাম। ব্যাগ মেঝেতে নামিয়ে রাখলাম। জামা ছাড়লাম না। আলো নিভিয়ে চোখের ওপর কনুইয়ের তাঁবু ফেলে শুয়ে রইলাম। তারপর একজন এসে আলো জ্বালিয়ে, “এ কী, কী হয়েছে?” প্রশ্ন করতে যা করলাম, আলমারিতে “ছাড়ব না” মর্মে টিপসইওয়ালা স্ট্যাম্প মারা ল্যামিনেটেড গ্যারান্টি না থাকলে সেটা কারও সঙ্গে করা যায় না।

মা সবসময় বলেন, অন্যের ক্রিয়া নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়ার কারণ খোঁজা বুদ্ধিমানের কাজ। মাথা ঠাণ্ডা হলে ভাবতে বসলাম। একটা লোক নিজের বিশ্বাসের কথা বলেছে, তাও আমাকে উদ্দেশ্য করে বলেনি (কথাটা বলার সময় বক্তার চিন্তার দিগন্তের কোথাও আমি ছিলাম না, আমি শিওর) তবু কথাটা আমার এত গায়ে লাগল কেন?

ভেবে ভেবে দুটো উত্তর আমি বার করেছি।

প্রথম কারণটা অবান্তরের পাঠকসংখ্যা সম্পর্কে আমার ভুল ধারণা। আমি কেন যেন ধরে নিয়েছিলাম আমার ব্লগ লোকে পড়ে। অফ কোর্স, যে কোনও পরিমেয় ধারণার মতোই আমার এ ধারণাও সম্পূর্ণ আপেক্ষিক। যে পাঠকসংখ্যা নিয়ে আমি তৃপ্ত, সেটা উচ্চাশাওয়ালা ব্লগারের কাছে হাসির ব্যাপার। এর একটা কারণ হতে পারে ছ’বছর আগে যখন ব্লগ লিখতে শুরু করেছিলাম তখন একজনও যে এ ব্লগ পড়বে সে আমার ধারণায় ছিল না। একজন পড়লেও সে আমার কাছে গৌরবের ব্যাপার হত, আর এখন তো একাধিক।

গায়ে লাগার দ্বিতীয় কারণটা লজ্জাজনক। তবু বলতে বসেছি যখন বলেই ফেলি। অবান্তর নিয়ে আমার মনে মনে বেশ অহংকার আছে। জীবনের বেশিরভাগ কাজ, যা অন্যরা অনায়াসেই করে, আমি করতে পারিনি। বা খুব খারাপ করে করেছি। তার কারণ সেই কাজগুলো নিয়ে আমার মনে কোনও অহংকার ছিল না। ওই কাজগুলোর সঙ্গে আমার ইগোকে কোনওদিন জড়াতে পারিনি। তাতে ক্ষতিই হয়েছে। ব্যর্থ হওয়ার লজ্জার আতংক ক্রমাগত বুকের ভেতর টের পাইনি বলেই কাজগুলো ফাইন্যালি হল না।

আর ঠিক যে কারণেই অবান্তর হল। আমি অন্য কারও সংজ্ঞায় হওয়ার কথা বলছি না। অন্যের দৃষ্টিতে দেখতে গেলে অবান্তর কিছুই হয়নি। ছ’বছর ধরে বোরিং ব্লগ লিখে চলেছি। বেশিরভাগই হাল ছেড়ে দিয়েছেন, কিছু কিছু শুভানুধ্যায়ী এখনও লেখালিখিকে “সিরিয়াসলি” নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। আমি বলছি আমার নিজের সংজ্ঞায় হওয়ার কথা। অবান্তর যখন শুরু করেছিলাম যতখানি নিশ্চিত ছিলাম কেউ পড়বে না, তার থেকেও বেশি নিশ্চিত ছিলাম আমিই লেখা বন্ধ করে দেব কোনদিন। বাকি সব খেয়ালের মতো আমার এ খেয়ালও অচিরেই গতিপথ বদলাবে। আমি নিজেকে ভুল প্রমাণ করতে পেরেছি। ছ’বছর পরেও সেই ব্লগস্পট, সেই আমি। সার্কাসের জালের বলের মধ্যে বনবন করে পাক খেয়ে চলেছি। একচুলও এগোইনি, কিন্তু হেলমেট খুলে রিং থেকে বেরিয়েও আসিনি। কারণ মনে মনে আমি বিশ্বাস করি যে এই কাজটা আমি ভালো করে করতে পারি। আর পারি বলেই কাজটা আমার আরও, আরও ভালো করে করতে ইচ্ছে করে। এখন যদি হঠাৎ সত্যিটা চোখের সামনে উন্মুক্ত হয়ে যায় যে আমার নিজের মাপে যেটা ভালো, গ্র্যান্ড স্কিমে সেটা আসলে ছেলেখেলা, তাহলেই দর্পের ফানুস ফুটো হয়ে গিয়ে কেলেংকারি।

কিন্তু আসল কারণটা দুটোর একটাও নয়। আজ ফেরার পথে সিপ্রালেক্স কিনে বাড়ি ফিরব, কাল থেকে ডোজ চালু হবে। শুকিয়ে যাওয়া সেরোটোনিনের ফোয়ারা আবার ছুটবে ব্রেনের এদিকসেদিক। আবার মনে হবে যা হচ্ছে দিব্যি হচ্ছে, যেমন আছি দিব্যি আছি। এই পোস্টটা চোখে পড়লে “ধরণী দ্বিধা হও” ভাবব। তবু সততার খাতিরে এই মুহূর্তের মনে হওয়াগুলো লিখে রাখলাম।


68 comments:

  1. হা হা হা! সবথেকে ভালো ব্যাপার হল এই যে এই পোস্টটা পড়ে আপনার পরে কী মনোভাব হবে সেটা আপনি নিজেউ আগেভাগেই ধরে ফেলেছেন. কাজেই আমাকে আর কিছুই বলতে হবে না!

    একটা গান শুনুন মন দিয়ে:
    https://www.youtube.com/watch?v=lVxN_SWvP7g

    ইতি
    সুতীর্থ

    ReplyDelete
    Replies
    1. মাথা ঠাণ্ডা করার জন্য সিপ্রালেক্স-এর বদলে এই গানটা ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে। থ্যাংক ইউ, সুতীর্থ।

      Delete
  2. Tumi besh bicholito hoyecho bujhte parchi. Je ei kothata boleche (bangla blog keu pore na blah blah) se nije hoyto Banglaye gaddu pawa public. To hell with them. We love Abantor.

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে নানা, সে রকম মনে করার কোনও কারণ নেই, কুহেলি। তাঁর যেটা মনে হয়েছে সেটা তিনি বলেছেন। আরও অনেকেরই এই কথাটা মনে হয় আমি জানি। তবে তাঁরা যখন বলেন তখন আমার সিপ্রালেক্স চালু থাকে কিনা তাই কিছু মনে হয় না।

      Delete
  3. Cipralex khao ba na khao ... erokom chintadhara shob blogger er life e besh koyek baar ashe. Self doubt thake. Blog niye doubt thake. Ekdom normal. Kaajei nijer eyi chinta ta ke beshi patta diyo na.
    Tomar blog je Bangali pore na shey janey na ki miss korche. Eta ageo bolechi shobbai ke ( amar post e ) :-)
    Likhe jao, amader anondo diye jao, ar Abantor ke bhalobeshe jao.
    Amra toh bashi e.

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, থ্যাংক ইউ, শর্মিলা। তোমরা আছ বলেই বেঁচেবর্তে আছি।

      Delete
    2. Oh hyaan ... tomar blog ar lekha amar Rajasthani bor o khub bhalobashe ... amake porey shonate hoye jodio. :-)

      Delete
    3. কী সাংঘাতিক!

      Delete
  4. Ki kando!! Bangla blog keoo pore na ei generalised idea ta bhodrolok/ mohila r mone jokhon eseche tate I bojha jasche onar mot ke patta debar kichu nei. Karon ta oi generalisation. Tumi nije o jano seta ,sedin just ektu down chilo
    bole sad peyeche..

    R jeta korte bhalo lagbe seta I korbe.ninduk ke duyo diye. Moreover sudhu tumi noe amra oo abantor ke bhalo basi..eta I kom ki .
    Bhalo theko.

    ReplyDelete
    Replies
    1. প্রিয়াঙ্কা, থ্যাংক ইউ। কিন্তু উনি নিন্দুক নন, উনি ওঁর সত্যিটা বলেছেন। যেটা আমার কাছে সত্যি নয় (সত্যিই সত্যি হলেও নয়)। তুমি ঠিকই ধরেছ, আমি সেদিন ডাউন ছিলাম, তাই অত ছ্যাঁক করে উঠেছি।

      Delete
  5. আশা করি সিপ্রালেক্স পাওয়া গেছে, আর এটাও আশা করব (গুগলে ওষুধটা কি কাজে লাগে সেটা জানার পর) যে সেটা আর খুব বেশিদিন লাগবে না|
    "প্রশ্ন করতে যা করলাম, আলমারিতে “ছাড়ব না” মর্মে টিপসইওয়ালা স্ট্যাম্প মারা ল্যামিনেটেড গ্যারান্টি না থাকলে সেটা কারও সঙ্গে করা যায় না।" - এরকম হাউমাউখাউ আমিও করে থাকি, কখনো মা-র সঙ্গে , কখনো ফোনের ওপারে একজন অতি ভদ্র মানুষের সঙ্গে - যারা ক্রমাগত আমাকে ক্ষমা করেই থাকে|
    এবারে বাংলা ব্লগ, বা বলা ভালো অবান্তরের পাঠকসংখ্যা নিয়ে কথা| আমার ব্যক্তিগত মত, অবান্তর যত পাঠকের কাছে পৌঁছয়, তার চেয়ে অনেক বেশি পাঠক তার থাকা উচিত| যে ব্লগ থেকে ঘুরতে ঘুরতে অবান্তরে এসেছিলাম, সে ব্লগ হয়ত এক মাসে একদিন খোলা হয়, অবান্তরকে আমি বুকমার্ক করে রেখেছি, দিনে একবার না খুললে কেমন কেমন লাগে| যদি অপরাধ না নেন, তাহলে আমি বলব একটা ফেসবুক পেজ খুলে ফেলুন| অনেক কম পরিশ্রমে অনেক বেশি লোকের কাছে পৌঁছানো যায়|

    ReplyDelete
    Replies
    1. থ্যাংক ইউ, থ্যাংক ইউ অন্বেষা। ওই সব ক্রমাগত ক্ষমা করে দেওয়া কিছু লোকের ডানার তলায় নিজেকে গুঁজে রাখতে পেরেছি বলেই জীবনটা চলছে...

      ফেসবুক-এ আমি নিজে স্বচ্ছন্দ নই, কাজেই আমার অবান্তরকে ওই ঝঞ্ঝার মুখে ঠেলতে মন চায় না। তার থেকে এই ভালো।

      Delete
    2. Maybe Twitter? I miss you on Twitter.

      Delete
    3. সর্বনাশ! সে তো আরও শক্ত ব্যাপার, অন্বেষা। চকচকে মতামত ঝকঝকে প্যাকেটে মূড়ে একশোচল্লিশ চরিত্রে প্রকাশ! আমাকে অবান্তরে বকতে দেখে যা ধারণাই হোক না কেন, আমার আসলে বলার কথা খুবই কম। যেটুকু আছে সেটুকুও অসম্ভব বোরিং আর ব্যানাল।

      তবে আমি আপনার কথাটা বূঝতে পারছি... আমার জন্য নয়, অবান্তরের জন্য আপনি সামাজিক মাধ্যমের কথা বলছেন.... পরামর্শ মাথায় রাখলাম। পরিস্থিতি বুঝলে নিশ্চয় অ্যাপ্লাই করব। থ্যাংক ইউ।

      Delete
    4. আরে ওটা আমি বলি নি !!! ওই ১৪০ শব্দে স-ও-ব বলে ফেলতে হবে শুনলে আমারও গলার কাছে কেমন ঠাণ্ডাঠাণ্ডা লাগতে থাকে !

      Delete
    5. হাহা, এটা মজা হয়েছে, অন্বেষা। হাই ফাইভ।

      Delete
    6. Sorry ami prothom comment korlam. Tai bhoy bhoy anonymous chilam... :P Apnar comment section ta besh lage ar post gulo o :)

      Delete
    7. এ বাবা, ভয়ের কী আছে। আপনার সঙ্গে আমি একশো শতাংশ একমত, আমারও নিজের পোস্টের থেকে আমার কমেন্ট সেকশনটা বেটার লাগে। আত্মপ্রকাশের জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  6. ei muhurta re anubhuti ta janie khub upokar korechen...ami abantor porchi gato 2 yrs dhore...konodin comment korini...keno korini, jani na...kintu apnar lekhata ajke porte gie mone holo je mathai banj venge porlo...seshe puro ta pore swasti pelam...khub bhoi hochhilo...

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা আরে ভয় পাওয়ার কোনও জায়গাই নেই। অবান্তর ছেড়ে যাব কোথায়? তবে আমার কাঁদুনির চোটে আপনি যে আত্মপ্রকাশ করলেন এটা জেনে ভালো লাগল। ধন্যবাদ।

      Delete
  7. dhor,ekta kobita bolchi
    pratham line ta censored tai likhlam na
    tumi chaile comment ta delete kore dio
    man khush rakho,chor er upor raag kore mati te bhat kheo na

    G*** ****YE DUNIYA
    HUM BAJAYE HARMUNIYA

    আলমারিতে “ছাড়ব না” মর্মে টিপসইওয়ালা স্ট্যাম্প মারা ল্যামিনেটেড গ্যারান্টি না থাকলে সেটা কারও সঙ্গে করা যায় না।
    na kora jay na....tai jonyei sei manush matro ek jon e hoy...are cul...eguloi to mouj..pore mone porle moja korbe dekho..

    bhalo theko

    prosenjit

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহাহাহা, কবিতাটা চমৎকার কিন্তু প্রসেনজিৎ। বিশেষ করে ওই হারমোনিয়াম বাজানোর জায়গাটা চমৎকার। সত্যিই, হারমোনিয়াম বাজাতে বাজাতে মন খারাপ করে থাকা ইমপসিবল। ছোটবেলায় দুবেলা প্যাঁ প্যাঁ করে বাজিয়েছি, তবু ভুলে গেলাম কী করে কে জানে। তোমার কবিতা পড়ে স্মৃতি ফিরে এল। থ্যাংক ইউ। এবার থেকে মন খারাপ হলে এটা সুর করে মনে মনে গাইব। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  8. কোনো কথা না বলে কেবল একটু মাথায় হাত বুলিয়ে দিতে ইচ্ছে করলো। রাগ কোরোনা,হ্যাঁ?

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে রাগ করার কী আছে, শাল্মলী। তোমার ইচ্ছেটাতো আমার পক্ষে খুবই আরামদায়ক। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  9. "Abantor" chhara amadero je cholbena Kuntala. r jani tumio chhere jabena... :-)

    "প্রশ্ন করতে যা করলাম, আলমারিতে “ছাড়ব না” মর্মে টিপসইওয়ালা স্ট্যাম্প মারা ল্যামিনেটেড গ্যারান্টি না থাকলে সেটা কারও সঙ্গে করা যায় না।" ... eta boro khnati kotha likhechho... jibone eirakom ek bondhu thaka boro proyojon... obosso oi tipsoi tai khub beshi jor ene dai mone hoi... :-)

    ReplyDelete
    Replies
    1. Cipralex sombondhye idea chhilona.. google korlam... beshidin jeno r kinte jete na hoi eitai wish kore gelam.

      Delete
    2. টিপসইয়ের গ্যারান্টি চমৎকার গ্যারান্টি, ইচ্ছাডানা। তবে গোটাটাই কপালের ব্যাপার। আমি তো অবান্তরে আছিই, আপনিও যে আছেন সেও জানি। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  10. Abantor aami khuuub bhalobasi.. feedly te notun post bhese uthlei chute ese pore pheli... please mon kharap korben na.. prothomoto ke ki bolche tate patta dewar dorkar nei.. dwitiyoto sedin aapnar mon o durbol chilo..

    bhalo thakben... onek bhalobasa pathalam..

    Indrani

    ReplyDelete
    Replies
    1. সব নষ্টের গোড়া ওই মন, ইন্দ্রাণী। আপনার ভালোবাসার প্রত্যুত্তরে আমার তরফ থেকেও ভালোবাসা রইল। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  11. অবান্তর প্রলাপ পড়ি। ঘোর অনিয়মিত, কারণ সবসময় ফুরসত হয় না। কিন্তু মেলগুলো ডিলিট না করে জমিয়ে রাখি, সুযোগ পেলেই একধারসে পড়ে ফেলব বলে। মাঝে মাঝে কোনও পোষ্ট একে ওকে ঘাড় ধরেও পড়াই। যথেষ্ট নয় বলছ!

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা, যথেষ্টর ওপরেও খানিকটা বেশি, শীর্ষ। খামতিটা আমার মাথার ভেতরের।

      Delete
  12. Bhebe dekho, ami shei tyash meye, convent educated, bangla ta improve koreche Germany te eshe karon ingriji bola kome geche. AMI TOMAR BLOG PORI!!
    I could do with some cipralex though !

    ReplyDelete
    Replies
    1. তুমি শুধু পড়ো না রাকা, তুমি সবার প্রথমে পড়েছিলে। তুমি স্পেশাল। যতদিন অবান্তর থাকবে ততদিন।

      Delete
  13. গুরু, কে তোমাকে আজেবাজে বলেছে শুধু নাম বলো একবার। তার গুষ্টির তুষ্টি করে দিয়ে আসব (দিল্লি গিয়ে)। বাংলা ব্লগ অনেকে পড়ে। অ-নে-কে। আর যদি শুধু ব্লগ স্ট্যাটস দিয়ে তুলনা করো, তাহলে বলব, চাপ নিও না। ওরম হয়। আমার বাংলা ব্লগের স্ট্যাটস দেখে নিজেরই অসীম লজ্জা হয়, কিন্তু তাও নির্লজ্জের মত লিখি।
    সিপ্রালেক্স কী সেটা জানার জন্যে গুগল ভাইপোর দ্বারস্থ হতে হল, আশা করি ওটার দরকার যেন বেশিদিন না পড়ে। আর আমি অবান্তরের সাবস্ক্রিপশন মেল এর ধার ধারি না, যখন ইচ্ছে হয় এসে ঘুরে দেখে যাই নতুন কী লিখেছ। কাজেই, আমরা আছি, থাকব। তুমি শুধু লিখে যাও :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে প্রিয়াঙ্কা, তুমি দিল্লি আসো আমি ভীষণ চাই, কিন্তু মারামারি করতে আসো সেটা একেবারেই চাই না। তাছাড়া যিনি বলেছেন তিনি দিল্লিতে থাকেন না, তিনি ইন্টারনেটে থাকেন।

      তবে তুমি যে আমার হয়ে গুষ্টির তুষ্টি করতে রাজি সেটা জেনে খুব খুব খুশি হলাম। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  14. Bhai Kuntala, Boyesher advantage tar shujog niye tumi bolchi!!

    Kae ki bolchey boye gaelo. Amra pori moner anandey, tumi likhey cholo praner khushitae. Onekei to bolae Bangla porey ki hobey, tai bole ki Bangla pora cherey daebo.

    Tumi likhey cholo, amra boshey achi porar jonyyo

    ReplyDelete
    Replies
    1. এই যুক্তিটা চমৎকার। বাংলা পড়েও তো কিছু হবে না, তা বলে কি বাংলা পড়ব না? পড়ব। বাংলা লিখেও যদি কিছু না হয়, তবু লিখব। সহজ এবং সরল কথা। মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য থ্যাংক ইউ।

      Delete
  15. আজকে একটা মজার ঘটনা ঘটল| শুনলে আপনার মজা লাগতে পারে ভেবে শেয়ার করছি -

    ব্যাপারটা শুরু হয়েছিল একটা পিপড়ের কামড় দিয়ে | ল্যাব থেকে বেরিয়ে মাথায় ফুল গুঁজে চায়ের দোকানের দিকে হাঁটছি, হঠাত মনে হল গলার কাছে কি যেন কামড়েছে, চুলকাচ্ছে, জ্বালা করছে| চায়ের দোকানে পৌঁছাতে পৌঁছাতে জায়গাটা লাল হয়ে ফুলে উঠল, সবাই ‘কি কামড়েছে, কি হয়েছে’ বলে হইহই করে এগিয়ে এল|তারপর যা হয়, ঈ দেখাল তার চোখের পাশে পোকা কামড়ে ফুলিয়ে দিয়েছে, তারপরে আমরা আলোচনা করলাম মশার কামড়ে বেশি লাগে না পিপড়ের, প বলল চোখের মধ্যে পিপড়ে কামড়ে ধরলে ভয়ানক লাগে, আমরা মাথা নেড়ে বললাম ঠিক ঠিক|
    তারও পরে চা খেতে খেতে শুরু হল উদ্ভট আলোচনা| কবে তাইল্যান্ডে একজন লোক সকালে কমোডে বসতে গিয়ে অস্থানে পাইথনের কামড় খেয়েছে, সে বেঁচে আছে না মরে গেছে (প-এর প্রশ্ন, পাইথন কি কামড়ায়? মানে, কামড়টা কি বিষাক্ত? তাতে আমার উত্তর, যাকে কামড়ায় তার কি তখন সেসব মনে থাকে?), বছরকয়েক আগে জিম্বাবোয়ের কোথায় এক প্রাক্তন ক্রিকেটারের বিছানার তলায় আট ফুট লম্বা কুমির সারারাত ঘুমিয়েছিল, তারপরে সকালে তাকে বের করতে গেলে প্রচন্ড আপত্তি জানিয়েছিল, (http://www.dailymail.co.uk/…/Man-40-finds-8ft-crocodile-hid…) কোন রাশিয়ান দম্পতি এক ভালুকছানাকে তুলে এনে ‘মানুষ’ করেছেন, সে এখন গম্ভীর স্টাইলে সকালে চায়ের টেবিলে এসে বসে, সন্ধেবেলা টিভি দেখে(বিশ্বাস হচ্ছে না তো? আমারও হয়নি, যতক্ষণ না এটা দেখলাম- https://www.youtube.com/watch?v=_8mZGLRY2L0)|
    কুমির তো দারুণ ল্যাদ হয়, তাই না? – ঈ|
    তা আর বলতে! দেখিসনি, কেমন হাত পা ছড়িয়ে রোদ পোহায়? – প|
    আমি আবার জন্তুটন্তু নিয়ে একটু বেশিই আদিখ্যেতা করি কিনা, তাই মিছিমিছি কাউকে বদনাম করাটা আমার সইল না| বলে বসলাম, ‘যাও সামনে, টের পাবে ল্যাদ না কি| পা-খানা কেটে নেবে’খন ঘ্যাঁচ করে|’ বলেই মনে হল আরেকটু মোলায়েম করা দরকার বোধ হয় কথাটা, তাই জুড়ে দিলাম, ‘জন্তুজানোয়াররা খিদে না পেলে চট করে হামলে পড়ে না|’
    প প্রথমে মাথা নেড়েছিল, পরে কি মনে পড়তে বলল, ‘না মানে সেটা সিংহ করে, বাঘ কিন্তু ওর’ম না, খিদে না থাকলেও মারে| ওদের আসলে নিজেদের পেট সম্পর্কে ঠিকঠাক এস্টিমেট নেই|’
    ঈ| ‘হ্যা হ্যা, একদম বাঙালিদের মত, খালি দৃষ্টিখিদে, পেট ঠেসে লুচি খেয়েও বিরিয়ানি দেখলে হাত বাড়ায়| সাধে কি বলেছে রয়্যাল 'বেঙ্গল' টাইগার!’
    ************************************************************************
    বুঝুন তা’লে আমরা কি মন দিয়ে রিসার্চ করি|

    ReplyDelete
    Replies
    1. বাঃ, এই সব চমৎকার আলোচনা করার মতো সঙ্গীসাথী আপনার আছে দেখে খুব হিংসে করলাম, অন্বেষা।

      Delete
  16. cipralex kharap jinis..otar withdrawal aro kharap
    asha korchi ekhon bhalo achen
    obantor pori
    sopatahe bar tinek kore ghure jai notun post er sondhane
    ar jini ultopalta bolechen onake na chinei bolchi uni kichhu janen na...ar tenake achha se mukh bekiye,kan nere jibh bar kore virtually bhengche dilam...

    ReplyDelete
    Replies
    1. আরে নানা, কেউ উল্টোপাল্টা কিছু বলেনি। নিজের মতামত প্রকাশ করেছে। আমার উল্টোপাল্টা মনে হয়েছে কারণ আপনি ওই যেটা বললেন, উইথড্রয়্যাল।

      Delete
  17. Ebochor ma mara gelo.....proc hondo ondhokar dingulo abantor er hath dhore katiechi....pora post bar bar porechi....tumi cipralex kheye likhbe na ki korbe janina....kintu abantor chara je kono oboshtha....please mone rekho amra shokole achi tomar jonno.

    ReplyDelete
    Replies
    1. অবান্তর না লেখার প্রশ্নই ওঠে না, রণিতা। কারণ সিপ্রালেক্সটা কিছু নতুন ব্যাপার নয়। অবান্তর লেখার মেজরিটি সময় ধরেই ওটা চলছে। হয়তো ওটা চলছে বলেই অবান্তর চলছে, আবার অবান্তর চলছে বলেই ওটার ডোজ বাড়াতে হচ্ছে না, কার্যকারণ আমি জানি না।

      তোমার ভরসা পেয়ে খুশি হলাম।

      Delete
  18. Prai protyek din sokalei office e ese ak barer jonye holeo 'Abantor' khule dekhe ni; deadline ba khub kaaj thakleo. Sob somoy comment kora hoyna kintu protyek ta post i onek baar kore pora.

    ReplyDelete
    Replies
    1. এ বাবা, রণদীপ, কমেন্ট করার জন্য কিন্তু আমি ওপরের কাঁদুনিগুলো গাইনি। তাছাড়া তোমার সঙ্গে অবান্তরের পরিচয় এতই গভীর হয়েছে যে তোমার রোজ এসে এসে "প্রেজেন্ট প্লিজ" দেওয়ার কোনও দরকারই নেই।

      আম না লিচু, কোনটা বেশি করে খাচ্ছ?

      Delete
    2. Aam er proti borabor i biased :) Kintu ekhane boddo overpriced. BTW Gurgaon te kintu 'Safal Fruits'(Daam Dharam!) nei :(
      Thakleo dekhini akhono.

      Delete
    3. হ্যাঁ, এদের দামের মাথামুণ্ডু নেই। আমটামের মতো সিজন্যাল আর জনপ্রিয় ফলের ক্ষেত্রে সফল খুব কাজে দেয় বলে মনে হয় না। কাজেই তুমি আফসোস কোর না, রণদীপ।

      Delete
  19. অবান্তর পড়ছি প্রায় এক বছর হতে চলল | আজ অবধি খালি একটা কুইজ এ কমেন্ট করেছিলাম | কিন্তু বিশ্বাস করুন, আপনার লেখা পড়তে খুব ভালো লাগে | রোজ সকালে একবার চেক করি যে নতুন কোনো পোস্ট এলো কি না | কে কি বলল তাতে কিছু যায় আসে না | আপনি লিখে যান | আমার পার্সোনাল মতে এত সুন্দর বাংলায় লিখতে আমি খুব কম লোক কেই দেখেছি |

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাহা, থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ, অনীশ। না না, কমেন্ট করতে হবে না। পড়লেই হবে। আপনারা যে স্ক্রিনের ওপারে আছেন আমি জানি তো, আর সে জন্যই "কেউ পড়ে না" শুনে অত বিচলিত হয়েছিলাম।

      Delete
  20. সিপ্রালেক্স কি জিনিস আমি জানি, আর চাই অন্যদের যেন জানতে না হয় সিপ্রালেক্স কি। আমি তোমার ব্লগের একজন নীরব পাঠক, দু-একবার কুইজ ছাড়া তেমন মন্তব্য করিনি। আমার এবং আমার মত আরো অনেক পাঠকের মন্তব্য না করার কারণঃ
    ১। তোমার সব পাঠকরা তোমার মত ভালো লেখক নয়, তাই লজ্জায় কিছু লিখে ওঠা হয় না।
    ২। অনেকেই তোমার ব্লগ রাস্তাঘাটে, তিফিনের ব্রেকে পড়তে থাকে, সেই মন নিয়ে সেই সময় হয়ত মন্তব্য করা যায় না! আচ্ছা আচ্ছা একটা/ দুটো শব্দ লেখা যায় বটে, তাও কেন লিখি না?
    ৩। আমার নিজের শুধু "ভালো লেগেছে"/ "ঠিকঠাক" এসব মন্তব্য করতে ভালো লাগে না। ইচ্ছে করে বেশ গুছিয়ে বসে অনেকগুলো কথা বলব, সেটা আর হয়ে ওঠে না :(
    ৪। পাতি ল্যাদ খায় জনতাঃ প্রবল উতসাহের বশে একটা দুটো মন্তব্য করে ফেল্লেও সেটা ধরে রাখা কঠিন।।
    কিন্তু তা সত্তেও অনেকেই পড়ে তোমার ব্লগ। তুমি স্ট্যাটস দেখতে পারো নিশ্চয়ই। আর এর আগেও লোকজন যেটা বলেছে, সেটা সত্যি ফেসবুক/ টুইটার ব্যবহার কর, সত্যিকারের ভালো পাঠক পাবে। যেমন ধর indiblogger এর তালিকায় অবান্তরের নাম দেখি না, কিন্তু যে ব্লগ গুলো দেখি তার চাইতে তোমার ব্লগ ঢের বেশি জীবন্ত। আমরা তোমার সাথে আছি, তুমি লিখতে থাক।
    তোমার লেখাটা পড়েই আমার একটু ফ্যাঞ্চফ্যাঞ্চে দুখু হল ভাবলাম একটু গলা জড়িয়ে ধরে বলে আসি
    "আর কেঁদো না আর কেঁদো না, কমেন্ট লিখে দেব, তাও যদি কাঁদ তবে তুলে আছাড় দেব ঃপ"
    এবার একটা ছোট বিশ্লেষণ করি কেন তোমার ব্লগ পড়ি।

    ১। আমি বাংলা অক্ষর বুভুক্ষুঃ কালকে বাড়ি থেকে বাড়ি এলাম রাত্রি এগারটায়, সকাল সকাল অফিস যাওয়ার আগে ছোলাভাজার ঠোঙাটা খালি করলাম, কারণ ঠোঙ্গাটা ছিঁড়ে পড়তে ইচ্ছে হচ্ছিল। বাকি সব জিনিস সপ্তাহান্তে সময় করে গোছাবো বলে রেখে দিয়েছি। সেখানে তোমার ব্লগে টাটকা বাংলা পড়ার সুযোগ কেউ ছাড়ে নাকি। আমার ধারনা, ইংরিজি হরফে লেখা হলেও হয়ত এত নিয়মিত পড়তাম না তোমার ব্লগ।
    ২। নিয়মিত আপদেটঃ নিয়মিত লেখা না থাকা কিন্তু যেকোনো ভালো ব্লগারএর পাঠক সংখ্যা কমিয়ে দেয়। আমি নিজেও ২/৩ মাসে একটা লেখা পোষ্ট করি, আর আমার সে ব্লগ কেউ পড়েও না ছাই!! তুমি ে ব্যাপারে ভীষণ দায়বদ্ধ, তাই পাঠক-ও তোমার কাছে দায়বদ্ধ, লেখা ভালো লাগুক, না লাগুক তারা আসেই।
    ৩। তুমি কি খুব ভালো লেখকঃ তোমার লেখার সাথে অনেকটা নবনীতা দেবসেনের লেখার আদল খুজে পাই, লীলা মজুমদারের আদল খুজে পাই বলাটা একটু বেশি হয়ে যাবে হয়ত। হিউমারে তোমার তুলনা নেই। ছোট্ট ছোট্ট ঘটনাগুলো তোমার হাতের গুনেই যেন রসে টইটুম্বুর থাকে। আমার ধারণা, তুমি নিজে জতই ফেলুদা-প্রেমিক হয় না কেন, তোমার হাতে গয়েন্দাগল্প হয়ত তেমন জমবে না।
    ৪। তোমার কি লেখা ছেড়ে দেওয়া উচিতঃ যদি মনে হয় অবান্তর তোমার কেরিয়ারের ক্ষতি করছে, তাহলে হয়ত ছেড়ে দেওয়াই উচিত, তবে সিপ্রালেক্স পায়ীদের জন্যে কিছু মানসিক ক্যাথারেসিসের দরকার হয়ত, এই ব্লগ তোমার কাছে তা নয় কি? যতদিন ভালো লাগছে লিখে দাও, তোমাকে তো লিখে খেতে হয় না, তাহলে এত ভাবছ কেন। এত মানুষ তোমায় ভালবাসে, সেই বা কম কি পাওয়া বল।
    শুভেচ্ছা রইল, ভালো থেক...

    ReplyDelete
    Replies
    1. এত সময় নিয়ে মন্তব্য করার জন্য অনেক ধন্যবাদ, অস্মিতা। আমার লেখা ছেড়ে দেওয়া উচিত কি না সে প্রশ্ন আমার মনে আসে না কখনওই, যদি না সিপ্রালেক্স ফুরিয়ে যায়। সিপ্রালেক্স খুব খারাপ, কিন্তু সিপ্রালেক্স আমাকে অনেক সাহায্য করেছে, এ আমি সবসময় জোরগলায় বলব।

      লীলার ছাপ আমার লেখায় দেখতে না পাওয়ার জন্য ওঁর তরফ থেকে আমিই তোমাকে থ্যাংক ইউ দিলাম।

      Delete
    2. ও, আর এই প্রশ্নটার উত্তরে "সিপ্রালেক্স পায়ীদের জন্যে কিছু মানসিক ক্যাথারেসিসের দরকার হয়ত, এই ব্লগ তোমার কাছে তা নয় কি?" ঘাড় একেবারে মাটিতে নুইয়ে হ্যাঁ বলছি।

      Delete
  21. আমি কিন্তু মনে করি সবার ব্লগ ভালো লাগার মত নয়... অবান্তর এর status তো অন্য অনেক ব্লগের থেকে আলাদা ... সেরকম ব্লগ উনি পড়েননি নিশ্চই। অনেকেই ব্লগ/ facebook page এ প্রচুর দুর্বোধ্য অবোধ্য বাক্য/বিষয় মিলিয়ে কিছু লেখে আর কিছু পাঠক সবেতেই পড়ে বা না পড়ে common কিছু প্রশংসা করে থাকে । তোমার লেখা তার থেকে
    অনেক দূর দিয়ে যায় । সেজন্যই অবান্তর যারা পড়ে ৪-৫ বছর ধরে পড়ে যায়। এর সাথে এর পাঠক পাঠিকা দের দেখে বোঝা যায় এটা ফালতু কথায় কান দেওয়ার জন্য লেখা হচ্ছে না ........ কিন্তু ওই ওষুধ টষুধ খুব বাজে ব্যাপার মনে হচ্ছে ...

    ReplyDelete
    Replies
    1. একদমই বাজে ব্যাপার নয় রে, ঊর্মি। অসুখ হলে ওষুধ খেতে হয়, শরীরের অসুখ হলে শরীরের ওষুধ। মনের অসুখ হলে মনের ওষুধ। অসুখ ব্যাপারটা বাজে, ওষুধ ব্যাপারটা নয়।

      যাই হোক। তোর সাপোর্ট, তোর অবান্তরে আসা, এসব আমার ভীষণ ভালোলাগার জায়গা। তোর সঙ্গে কথা বলতে গেলে আমার মনে হয় স্কুলের মাঠে দাঁড়িয়ে কথা বলছি। সেই ফিলিংটার জন্য অনেক অনেক থ্যাংক ইউ।

      Delete
  22. দূর তোমার এই ব্লগ পড়ে আমি ব্লগ খুলে ফেললাম আর তুমি হতাশ হয়ে পড়ছ কাউন্ট নিয়ে। হয়ত বড় স্কেলে ধরলে তোমার ব্লগ বিশাল কিছু না , কিন্তু বড় স্কেল নিয়ে ভাবার কি আছে ,আমরা সবাই ছোটখাট মানুষ আমাদের অবান্তর পরে আনন্দ হয় তোমার লিখে ফুরিয়ে গেলো। ওরম লোক অনেক আছে যারা সবেতে নেগেটিভ\নেগেটিভ দেখে বেড়ায় , বেজায় বজ্জাত হয় এগুলো মন মেজাজ খারাপ করার দাওয়াই আর কি। মন টন অনেক খারাপ করেছ এবার চমত্কার একখান লেখা লিখে দাও দেখি , তোমারও মন ভালো হোক আমাদেরও। :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. সেই ভালো, প্রদীপ্ত।

      Delete
  23. esob ki likhechen? loker kothay kaan na diye nijer moner anonde likhe jaan, r sei lekhagulor madhyome amader keo anondo diye jaan.
    kodin prochondo byasto chhilam bole online hoini serokom bhabe, kintu aaj apnar ei post ta dekhe khub i aschorjo holam. oneker moton amio kintu apnar blog thekei onupraneeto hoyechhi.
    lokey to kotokichui bole, tar 99.9% content er dik diye jali. esob chinta matha theke duur kore diye fer lege porun dekhi. borsha elo bole, r apnio Abantor e ekta mon-bhalo-kora-bristipat er moton lekha likhe felun. :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনাদের বর্ষার জায়গাইয় বর্ষা এলো বলে, অরিজিত, আমাদের মরুভূমিতে তার এখনও অনেক দেরি। আপনার মন্তব্য পড়ে খুশি হলাম, ভরসা পেলাম। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  24. উফফফ আবার ভয় পেয়ে গেছিলাম।. এই বুঝি অবান্তর বন্ধ হয়ে গেল!
    যাক বাবা, হয়নি :)
    ভালো থাক, ভালো লেখ আর আমাদের ও ভালো রাখো কুন্তলা।
    শুভেচ্ছা রইলো।

    ReplyDelete
    Replies
    1. বন্ধ হবে কী, কাকলি, তাহলে মহা বিপদ। তোমার শুভেচ্ছার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

      Delete
  25. সিপ্রালেক্স নিয়ে এত আলোচনা পড়ে আমি ও গুগলের দ্বারস্থ হলাম।
    http://www.livestrong.com/article/26536-natural-increase-serotonin/

    নিশ্চয় তুমি এগুলো অলরেডী পড়ে ফেলেছ। তবে সাঁতার কিংবা রানিং ক্লাব ব্যাপার টা খুব কাজের--- দিল্লি তে অনেক আছে বলে শুনেছি। সিপ্রালেক্স এর সংগে ভেবে দেখো।

    আর উটকো জ্ঞান মনে হলে রাগ করো না প্লিজ।

    আজকাল আমার শরীর আর তার জন্য মন দুটোই খারাপ থাকে--- তাই অন্য কারোর এরকম শুনলে বেশ বাজে লাগে, তাই বললাম।

    ReplyDelete
    Replies
    1. না না রাগ করার কিছু নেই, প্রিয়াঙ্কা। এক্সারসাইজ সত্যিই হেল্প করে।

      Delete
  26. বাংলা ব্লগ কেউ পড়েনা? বললেই হল? যত্তসব বাজে কথা। আর তাছাড়া যে বলেছে সে তো স্বীকার করেইছে যে এ কথাটা সত্যি হলেও তার ব্যতিক্রমও আছে। কাজেই কথাটা আপনার ক্ষেত্রে খাটেনা। বাংলা ব্লগের পাঠক থাকলেও খাটেনা, না থাকলেও খাটেনা। আপনি এত দুঃখ পাচ্ছেন কেন? আমি আজকাল ব্যস্ত হয়ে রোজ কমেন্ট করিনা বটে, কিন্তু আমি মোটেই হাল ছেড়ে দেওয়াদের দলে নই। আপনার প্রতিটি লেখা পড়ি, এবং এখনও স্বপ্ন দেখি আমার বই অবান্তরের প্রথম পাতায় একদিন আপনার অটোগ্রাফ নেওয়ার সুযোগ পাবই। আপনি লেখা চালিয়ে যান।

    ReplyDelete
    Replies
    1. দুঃখ পাচ্ছি নিজের দোষে, সুগত। কারণ তো সত্যিই নেই। আপনার উৎসাহ পেয়ে খুব ভালো লাগল। থ্যাংক ইউ।

      Delete
  27. Bhalo lekhok matre-r i majhe majhe songshoi aste badhyo. Apnar ei blog-post ti o sei atmo-songshoi er i ongsho. Onyer kotha jani na, ami apnar blog niyomito pori. Pathok sonkhya niye dukho korben na, amader matri-bhasa-r pathok sonkhya kom se amader jati-r durbhagyo. Aaj jodi new yorker er moto potrika bangla-te thakto kimba 'desh' potrika-r sei din thakto apnar lekha tate niyomito beroto. Apnar moto lekhak akhono ache, seta-i bangla bhasa-r vorsa-r kotha.

    ReplyDelete
    Replies
    1. এইরকম ভালো কথা যদি ওই দুঃখের সময় শুনতাম, তাহলে দুঃখটাই আর হতো না। থ্যাংক ইউ, ঘনাদা।

      Delete
  28. ব্লগ লেখার এইটুকুই উপকার যে আজ অনেকদিন পর মনে হলো কাজের চাপে অনেকদিন অবান্তর এ যাইনি দেখি নতুন কি দিলো............

    ReplyDelete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.