November 22, 2013

L'Inde à Paris






20 comments:

  1. Replies
    1. থ্যাংক ইউ তিন্নি।

      Delete
  2. ufff uporer k-ta chhobi te to mone hochhe Gariahat chattor uthe esechhe , darun !!! darun !!! Chennai er haat e gona je k-ti jinish khub bhalo legechhilo tar modhye 'Saravanaa Bhavan ' ekti :-) . Ar last dish ta amar o darun priyo. ar oi phena otha coffee o .

    ReplyDelete
    Replies
    1. পুরো গড়িয়াহাট কিনা বলুন ইচ্ছাডানা? সরাভানা ভবন আমার পৃথিবীর ফেভারিট পাঁচটা রেস্টোর‍্যান্টের মধ্যে পড়বে। সুখের ব্যাপার হচ্ছে আমার কাছের লোকজনও সরাভানার ফ্যান। আমরা নির্লজ্জের মতো ঘনঘন দিল্লির সরাভানাটায় যাই। আপনি দিল্লি এলে জানাবেন, আপনাকে সরাভানায় নিয়ে যাব।

      Delete
    2. Beronor jonye amar ekta pa sobsomoi uthei thake... tar upor jodi bhalo bhalo khabarer hatchhani thake... taholeto kothai nei... :-)

      Delete
  3. "Bangladeshi tatka shaak sobji o machh pawa jay" ta daroon! Ojana bhashar bheere hothat kore bangla dekhte pele chokh ta kirom juriye jay na? :D

    ReplyDelete
    Replies
    1. হাই ফাইভ বিম্ববতী। আর আমার কেন যেন খুব ছেলেমানুষি গর্বও হয়। কীরকম বীরদর্পে বাংলা বিরাজ করছে সাইনবোর্ডে। মনে হয়্ লোককে ডেকে বলি, "দ্যাট'স মাই ল্যাংগোয়েজ, ইউ নো?"

      Delete
  4. Jani na eta baRabaRi ki na, kintu New Jersey te prothom je din Patel Brothers e gelam, giye chena jana Maggi, Britannia, Parachute dekhechilam, sedin ekta odbhut ekta shanti, ekta bhalo laga hoyechilo mone. Niagara Falls dekheo seta hoyni. Aar konodin i seta hoyni.

    Sedin i amar bojha uchit chilo o deshe ami beshidin tikbo na :)

    ReplyDelete
    Replies
    1. আমরা পেটারসনে গ্রেট ফলস দেখতে গিয়ে বাংলা সাইন দেখে উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম, তোর মনে আছে?

      Delete
    2. Prothom dike JC te ekta Bangla machher dokan chilo, tar sign board ta banglay lekha, boro horof e. Dokan ta bodhoy uthe geche kintu 12 bochor age, oi dokan dekhe uttejito hoye chobi tulechilam. Digital na Film Camera.

      Delete
    3. জার্সি সিটিতে বাংলাদেশী মাছের দোকান একটা এখনও আছে, তবে তার সাইনবোর্ডটা বাংলায় লেখা নয় বোধহয়।

      Delete
    4. সুমনা, বাড়াবাড়ি কিচ্ছু না, দেখছ তো সকলেরই এক অবস্থা। বাংলার বাইরে বাংলার দেখা পেলে যারা উত্তেজিত না হয় তারাই পাগল, আমরা নই।

      সুগত, হাই ফাইভ।

      বং মম, আপনাকেও হাই ফাইভ। আমারও প্যাটেল স্টোরসে প্রথমবার ঢুকে আবেগে গলা বুজে এসেছিল। পার্লে জি-র প্যাকেট দেখে অত খুশি আমি জীবনে হইনি আর হওয়ার চান্সও নেই।

      Delete
  5. bideshey bodhey bangala bhasha y lekha koyekta horof khnuje pawa ba hothat kore rastay bangla ba hindi shunte pawar onubhuti i alada.

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনি নিউ জার্সিতে থাকেননি তাই ও কথা বলছেন। এখানে গোটা দিন বাংলা বা হিন্দি না শুনতে পাওয়ার অনুভূতিটাই আলাদা, শুনতে পাওয়ারটা নয়।

      Delete
    2. পৌষালি, একদম একমত। সত্যিই ওই অনুভূতিটা অন্যরকম। অবশ্য জায়গা বুঝে, সেটা সুগত ঠিকই বলেছেন।

      Delete
  6. বাঃ, আপনি তো প্যারিসে দিব্যি একটা খুদে ভারত খুঁজে বের করে ফেলেছেন। এ প্রসঙ্গে মনে পড়ে গেল, একবার লাস ভেগাসে একটা বিরাট দোকানে "ইন্ডিয়ান হ্যান্ডিক্রাফটস" লেখা দেখে উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম। ঢুকে দেখি, ও মা, এরা তো আমেরিকান ইন্ডিয়ান বলতে চেয়েছে!

    ReplyDelete
    Replies
    1. এইটা আমারও ভীষণ হয়। এখনও হয়। কেন হয় কে জানে। এই সেদিন ইন্ডিয়ান হেডব্যান্ড নামের একটা আর্টিকল খুব উৎসাহ নিয়ে পড়তে ঢুকেছিলাম, নিশ্চিত ছিলাম আমার ছোটবেলার হেয়ারব্যান্ড নিয়ে লিখেছে। তারপর বুঝতেই পারছেন কেমন হতাশ হলাম।

      Delete
  7. kaporer dokangulo besh majar !

    ReplyDelete
    Replies
    1. হ্যাঁ তিন্নি, ওগুলো সিরিয়াসলি হাসি-উদ্রেককারী।

      Delete

 
Creative Commons License
This work is licensed under a Creative Commons Attribution-NonCommercial-NoDerivs 3.0 Unported License.